Home » চট্টগ্রাম » স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর অপহরণ মামলা,অত:পর….

স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর অপহরণ মামলা,অত:পর….

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

জে.জাহেদ,  চট্টগ্রাম :   নারী নির্যাতন ও অপহরণ মামলায় ফাঁসিয়ে বিমান বাহিনী হতে স্বামীর চাকরিচ্যুত হয়ে হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন মোঃ মাহবুব আলম। এমনকি গতকাল চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে স্ত্রী ডা. হাসিনা মমতাজ হীরার বিরুদ্ধে সরাসরি নানা তথ্যও দিয়েছেন।

প্রেস ক্লাবের সংবাদ সম্মেলনে মো. মাহবুব আলম অভিযোগ করেন- তার স্ত্রী ডা. হাসিনা মমতাজ হীরা তার নামে মিথ্যা মামলা করে হয়রানি করছেন। তার নামে বিমান বাহিনীতে মিথ্যা অপহরণের অভিযোগ দিয়েছেন যে কারণে তাকে চাকরিচ্যুত হতে হয়েছে।

তিনি বলেন, স্ত্রী ডা. হাসিনা মমতাজ হীরা তার পরিবার ও সাবেক স্বামী ও সাবেক শ্বশুরের প্ররোচনায় চট্টগ্রাম আদালতে অপহরণ ও ধর্ষণের মামলা করেছেন।

জানা যায়, গত ১২ জুন চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এ জোর করে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগে মো. মাহবুব আলমের বিরুদ্ধে মামলা করেন ডা. হাসিনা মমতাজ হীরা।

মামলার এজাহারে হাসিনা মমতাজ হীরা উল্লেখ করেন-গত ১৫ মে সকালে তাকে জোর করে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যান মাহবুব আলম।

১৫ ও ২২ মে তাকে আটকে রাখেন এবং ধর্ষণ করেন। হাসিনা মমতাজ হীরার মামলায় আনা অভিযোগ মিথ্যা উল্লেখ করে মাহবুব আলম বলেন, আমরা দুইজনই স্বেচ্ছায় বিয়ে করেছিলাম। অপহরণের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ১৫ মে একসঙ্গে কারে করে ঢাকা যাই। ঢাকা থেকে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে করে যশোর যাই। ১৬ মে বিয়ে করি। পরে আবার ঢাকায় গিয়ে শপিং করি একসঙ্গে। অপহরণ করলে এসব কি সম্ভব?

তিনি অভিযোগ করে বলেন- হাসিনা মমতাজ হীরার আগের স্বামীর ঘরে একজন সন্তান রয়েছে। সেই সন্তানকে জিম্মি করে তাকে দিয়ে মামলা করিয়েছে সাবেক স্বামী ডা. ওয়াহিদ চৌধুরী ও সাবেক শ্বশুর মো. মাহবুব চৌধুরী। হাসিনা মমতাজ হীরার বাবা হারুন-অর-রশিদকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে বিমান বাহিনীতে অভিযোগও করিয়েছেন।

তিনি বলেন, বিমান বাহিনীতে আমার বিরুদ্ধে তদন্ত হয়েছিল। তদন্ত কালে হাসিনা মমতাজ হীরা আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেননি। তিনি আমাদের সম্পর্কের বিষয়ে সত্য ঘটনা জানিয়েছিলেন বিমান বাহিনীর কর্মকর্তাদের কাছে। কিন্তু পরে গিয়ে সাবেক স্বামী ও শ্বশুরের চাপে আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

স্ত্রী হাসিনা মমতাজ হীরাকে ফিরে পেতে ঢাকার সহকারী জজ ও পারিবারিক আদালতে একটি মামলা করেছেন বলেও জানান মাহবুব আলম।

জানা যায়, মো. মাহবুব আলম বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর চাকরিচ্যুত কর্মকর্তা ও বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর এলাকার মো. আবদুল মালেকের পুত্র।

তার স্ত্রী ডা. হাসিনা মমতাজ হীরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ও বরিশাল জেলার মুলাদি চরকালেখান এলাকার মো. হারুন-অর-রশিদের মেয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৫৭-র চেয়ে ৩২ বড়ই থাকল, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক ::  সাংবাদিক ও মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন মহলের আপত্তি থাকলেও ...