ঢাকা,মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

লামায় কোয়ান্টামে নালায় পড়ে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

লামা সংবাদদাতা ::
বান্দরবানের লামায় সরই ইউপির কোয়ান্টাম কসমো স্কুলে মাঠে বৃষ্টির পানিতে খেলতে গিয়ে একটি পানি ভর্তি পাইপে পড়ে দুই ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার ০৭ জুন বেলা ১১টায় কোয়ান্টাম কসমো স্কুলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুরা হলেন, কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজের আবাসিক ৬ষ্ট শ্রেণী পড়ুয়া মোহাম্মদ আব্দুল কাদের জিলানী (১২) এবং শ্রেয় মোস্তফিজ (১২)। এদের মধ্যে কাদের এর বাড়ি চাঁপাইনবাবঞ্জ ও শ্রেয় এর বাড়ি ঠাঁকুরগাও জেলায়।

সরই পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের উপ-পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া দুই ছাত্র মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, স্কুল প্রাঙ্গণে বৃষ্টির পানিতে খেলতে গিয়ে খেলার এক ফাঁকে শিশু দুজন পানির স্রোতে বিরাট পাইপে ডুবে পুলুখালে চলে যায়। এতে তাদের মৃত্যু হয়। পরে সহপাঠীরা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে খবর দিলে তারা দুইজনকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী লোহাগাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেল চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

সরই এলাকার সচেতন এক ব্যক্তি বলেন, এত ছোট বাচ্চারা অতি ভারি বৃষ্টির সময় পানিতে খেলছে। তখন কোয়ান্টাম কর্তৃপক্ষের দায়িত্বরত লোকজন কোথায় ছিল? বাচ্চাদের বিষয়ে তাদের অবহেলা ও উদাসীনতা রয়েছে। তাদের দায়িত্বের অবহেলার কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে নিহত শ্রেয় মোস্তাফিজের চাচা জাকির মোস্তাফিজ মিলু বলেন, শিশুর দায়িত্ব নিয়ে তারা অবহেলা করেছে, তাই আমাদের সন্তানকে হারিয়েছি। কিভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ছেলেটি স্কুল থেকে বের হয়ে এভাবে মারা গেল, আমরা এর জবাব চাই। অবহেলাকারীদের কঠোর বিচার চাই।

লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো. আলমগীর চকরিয়া নিউজকে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে মৃত ২ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে ছাত্রদের মরদেহ পরিবারে কাছে হস্তান্তর করা হবে এবং এই বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পাঠকের মতামত: