ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

দুইদিনে ২৯টি মামলায় ৭২ হাজার জরিমানা

চকরিয়ায় লকডাউন বাস্তবায়নে ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে অভিযান

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া ::  করোনা ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে সর্বাত্মক লকডাউন কঠোর বাস্তবায়নে ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে মাঠে রয়েছে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সরকার ঘোষিত এক সপ্তাহের লকডাউন কার্যকরে নির্দেশনা অমান্য করে নিয়মের বাইরে দোকানপাট, মার্কেট ও শপিংমল খোলা রাখা, স্বাস্থ্যবিধি না মানা, মাস্ক পরিধান না করাসহ বিভিন্ন অপরাধের দায়ে দুইদিন ধরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ২৯টি মামলার বিপরীতে বিভিন্ন প্রতিষ্টান ও ব্যক্তিকে অর্থদণ্ড দিয়ে ৭২ হাজার ৫শত টাকা জরিমানা আদায় করেন।
বুধবার ভোর ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন কঠোর কার্যকরে বাস্তবায়ন ও মাঠ পর্যায়ে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে ও মনিটরিংয়ে অভিযানের নেতৃত্ব দেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানভীর হোসেন।

সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.তানভীর হোসেন বলেন,
সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত ও কার্যকর করার লক্ষে মাঠ পর্যায়ে লকডাউন কার্যকরে বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে ও সরকারের নির্দেশনা না মেনে নিয়মের বাইরে চলাফেরা, দোকানপাট, মার্কেট খোলা রাখা, স্বাস্থ্যবিধি না মানা, মাস্ক পরিধান না করার অপরাধের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ২৯টি মামলার বিপরীতে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্টানকে অর্থদণ্ড দিয়ে ৭২হাজার ৫শত টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি হার রোধে ও সর্বাত্মক লকডাউন কঠোর কার্যকর বাস্তবায়নের আলোকে পৌরশহরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে এবং মার্কেটে করোনা প্রতিরোধে জোর তৎপরতা চালিয়ে মনিটরিং করা হয়। এসময় আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দোষী ব্যক্তিদের অর্থদণ্ডে দন্ডিত করা হয়েছে। সরকারের নির্দেশিত লকডাউন কার্যকরে আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আরো কঠোর ভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

পাঠকের মতামত: