ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

ডা. শাহ আলম করোনা আক্রান্ত

ইমাম খাইর, কক্সবাজার :: কক্সবাজার ফুয়াদ আল খতীব হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. শাহ আলম করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।গত শুক্রবার (৯ এপ্রিল) তার করোনা শনাক্ত হয়।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি ডা. মো. শাহ আলম নিজেই মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সামান্য অসুস্থতা অনুভব করায় গত বুধবার (৭ এপ্রিল) চট্টগ্রামের পার্কভিউ হাসপাতালে স্যাম্পল জমা দেন। একদিন পরে ল্যাবের রিপোর্টে তার করোনা ‘পজিটিভ’ আসে।

করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে হাসপাতালেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অধীনে চিকিৎসাধীন।

তবে, শারীরিকভাবে তিনি ঝুঁকিমুক্ত।

ডা. মো. শাহ আলমের মেয়ে ডাঃ শাম্মী এবং ছেলে সালমানও (মালয়েশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যায়নরত) অসুস্থ বলে জানা গেছে।

সুস্থতার জন্য তিনি সবার নিকট দোয়া কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, ডা. মো. শাহ আলম রামুর গর্জনিয়া সিকদার পাড়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক সিকদারের ছেলে।

তিনি পরিবারের ৭ ভাই চার বোনের মধ্যে সবার বড়।

ডা. মো. শাহ আলম বায়োফার্মা লিমিটেড, ঢাকা আল বারাকা কিডনি হাসপাতাল, চকরিয়া জমজম হাসপাতাল (প্রা.লি.), চট্টগ্রাম ন্যাশনাল হাসপাতাল, চট্টগ্রাম পার্ক ভিউ হাসপাতালসহ অগনিত ক্লিনিক-হাসপাতালের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। এসবের মাধ্যমে তিনি নিজেকে মানবসেবায় নিয়োজিত রেখেছেন। ডা. মো. শাহ আলম কক্সবাজারের সর্বজনবিদিত ও পরিচিত নাম।

এদিকে, কক্সবাজারের স্বনামধন্য চিকিৎসক ও সমাজসেবক ডা. মো. শাহ আলমের দ্রুত সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন তার সৌদি প্রবাসী ভাই এম.এ মান্নান।

তিনি বলেন, গতবছর মহামারি করোনার কঠিন সময়ে কক্সবাজারে যখন প্রায় ক্লিনিক-হাসপাতাল, ডাক্তারের চেম্বার বন্ধ ছিল ওই কঠিন সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফুয়াদ আল খতীব হাসপাতাল খোলা রেখে ২৪ ঘন্টা চিকিৎসা সেবা দিয়েছিলেন ডাঃ মো. শাহ আলম। এমন কি চট্রগ্রাম সিটিতে পার্কভিউ হাসপাতালে করোনা রোগিদের আলাদা ইউনিট সৃষ্টি করে চিকিৎসাসেবাসেবা নিশ্চিত করতে যথেষ্ট ভূমিকা রাখেন তিনি।

রেমিটেন্সযোদ্ধা এম.এ মান্নান বলেন, আমাদের সবার প্রিয় শ্রদ্ধেয় ডাঃ শাহ আলম। এখনো করোনা রোগি আর মানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তার জন্য আমরা মহান রবের স্পেশাল রহমত ও সুধিমহলের দোয়া চাই।

করোনা আক্রান্ত ডাঃ শাহ আলমের জন্য দেশবাসীর নিকট দোয়া প্রার্থনা করেছে ফুয়াদ আল খতীব হাসপাতাল পরিবার।

পাঠকের মতামত: