ঢাকা,মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

নতুন ঘরে নতুন বউয়ের বদলে এলো দুই ছেলের কফিন

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি :: প্রবাসী সেলিনা আকতারের আশা ছিল দুই পুত্রকে বিয়ে করাবেন। নতুন ঘরে নতুন বউ আসবে। তাই তিনি বছরখানেক আগে নতুন বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু করেন কিন্তু সেই ঘরে এলো সেলিনার দুই সন্তানের লাশের কফিন।

আজ বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) এমন দৃশ্য দেখা গেছে নাজিরহাট পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের চরগাঁও পাড়া এলাকায়। নিহত দুই পুত্রের লাশ দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন তাদের মা সেলিনা। কাঁদতে কাঁদতে বিলাপও করেন। তার দুই পুত্রের নাম মুহাম্মদ আব্বাস হোসেন (২৫) ও মুহাম্মদ আজাদ হোসেন (২০)।

সন্তানদের বিয়ে করাবেন বলে পাকা ঘরের কাজ শুরু করেন। তার আগে ৬ মাস পূর্বে হঠাৎ হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তার স্বামী আহমদ হোসেন।

কান্নারত সেলিনা আকতার জানান, রবিবার নিহত দুই ছেলের সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয়। তারা মা এবং দেশে থাকা তিন ভাইয়ের খবর নেন। ওমানে ফিরে যাওয়ার জন্য বিমানের টিকেট করছেন কি না জানতে চান। দুই ছেলে বারবার বলছিল, মা তোমাকে ছাড়া ভালো লাগছে না। ভাইদের নিয়ে তাড়াতাড়ি চলে আসো।

জবাবে সেলিনা বড় ছেলে আক্তারের জন্য বউ ঠিক করে আসবেন বলে জানিয়েছিলেন।

সেলিনার তিন ছেলে আকতার হোসেন (২৮), আয়মন হোসেন (১৩) ও আয়াজ হোসেন (৯) মায়ের সঙ্গে দেশে ছিল।

উল্লেখ্য, গত ৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে ওমান শহরে বন্ধুদের সঙ্গে ওমানের সমুদ্র সৈকতের আল শিফা নামক এলাকায় সময় কাটানোর এক পর্যায়ে দুই ভাই সাগরে গোসল করতে নামলে ভাটার টানে তলিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে পানিতে ভাসমান অবস্থায় দুইজনের লাশ উদ্ধার করে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় নাজিরহাট বড় মাদ্রাসা মাঠে দুই ভাইয়ের নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাদের লাশ দাফন করা হয়৷

পাঠকের মতামত: