ঢাকা,সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

 সেন্টমার্টিনে ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি : সেন্টমার্টিনে ভুল চিকিৎসায় এগারো মাস বয়সী মোঃ আনাছ নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রবিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সেন্টমার্টিন বাজার মোড়ে ডাক্তার সজলের ফার্মেসিতে এ ঘটনা ঘটে।

শিশুর বাবা মোঃ রশিদ আহমদ সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের কোনারপাড়া এলাকার বাসিন্দা। রশিদ আহমদ একজন দিনমজুরের কাজ করেন। তিনি জানিয়েছেন, আমার আনাছ প্রতিদিনই খেলাধুলা করছিলো। বিকেলে একটু কাশি দিচ্ছিলো।

আজ ( ৮ জানুয়ারি রবিবার) সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টার দিকে আমার ছোট্ট শিশু আনাছকে সেন্টমার্টিন বাজার সংলগ্ন ডাক্তার সজলের ফার্মেসীতে নিয়ে গেলে ফার্মেসীতে যখন ঢুকছিলাম তখনই আমার বাচ্চার শুধু একটু একটু কাশিটাই ছিলো মাত্র।

এ সময় ডা. সজল শিশুটিকে চিকিৎসা হিসেবে নেবুলাইজার লাগিয়ে দিলো। নেবুলাইজার লাগিয়ে মিনিট তিনেকের মধ্যে চেয়ার বসা অবস্থায় শিশু আনাছের নেবুলাইজার চলা অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। সন্তান হারা দম্পতির অভিযোগ ভুল চিকিৎসার কারণেই শিশু আনাছের মৃত্যু হয়েছে।

আনাছের মা কান্না করতে করতে বলেন, সজল ডাক্তার না! সে একজন খুনি। সে আমার আদরের বাচ্চাকে খুন করেছে। আমার সুস্থ বাচ্চাকে ঘাতক ডাক্তার সজল মেরে ফেলেছে। আমি এই ডাক্তার নামক খুনির দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চাই।

শিশু আনাছের মামা শুক্কুর আহমেদ বলেন, দিনের পর দিন ডাক্তার সজল সেন্টমার্টিন দ্বীপের মানুষের চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা দিয়ে আসছে। সে মেয়াদবিহীন ঔষধ বিক্রি করাসহ যথেষ্ট প্রমাণাদি আছে এ দ্বীপের মানুষের কাছে। আমরা এ ধরণের ভুয়া ডাক্তার সেন্টমার্টিনে চাই না। এ ঘটনা বার বার পুনরাবৃত্তিতে স্থানীয় বাসিন্দারা তার উপযুক্ত বিচারের দাবি জানায়।

সেন্টমার্টিনের স্থানীয় বাসিন্দা ঈসমাইল বলেন, গত সপ্তাহে আমার ৫ বছরের বাচ্চাকেও ভুল চিকিৎসা করে মেরে ফেলেছে এই ডাক্তার সজল। আমি মনে করছি তার ডাক্তারি কোনো সার্টিফিকেট আছে কিনা আমি সন্দেহ করছি। প্রশাসনের নিকট আমার দাবী সজল আসলেই একজন ডাক্তার কিনা উপযুক্ত যাচাই করা জরুরী মনে করছি।

এ বিষয়ে চিকিৎসক সজলের ফার্মেসীতে জানতে গেলে এসময় তাকে পাওয়া যায়নি। এবং তার ফোন নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

পাঠকের মতামত: