ঢাকা,শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

ভুতুড়ে পত্রিকা বন্ধ করার ব্যবস্থা করছি: তথ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক :: কারা সাংবাদিক হতে পারবেন সেই মানদণ্ড তৈরি হচ্ছে জানিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘আমরা ভুতুড়ে পত্রিকা বন্ধ করার ব্যবস্থা করছি। একই সঙ্গে যে কেউ যেন সাংবাদিক পরিচয় না দিতে পারে সেটিরও উদ্যোগ নিয়েছি।’

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে ‘দৈনিক ভোরের আকাশ’-এর নবরূপে আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতাদের অনুরোধ জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি প্রেস কাউন্সিলকে অনুরোধ জানিয়েছি, নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে কারা সাংবাদিক হতে পারেন সেটি অন্তত নীতিমালা বা মানদণ্ড তৈরি করার।’

ভুতুড়ে পত্রিকা যেমন আছে তেমন ভুতুড়ে অনলাইনও আছে মন্তব্য করে হাছান মাহমুদ বলেন, অনলাইন পোর্টালের বিষয়ে আমরা এক্রিডেশন কার্ড খুব সতর্কতার সঙ্গে দিচ্ছি। রেজিস্ট্রেশনবিহীন যে অনলাইন আছে তাদের এক্রিডেশন কার্ড বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রেজিস্ট্রেশন অনলাইনের সাংবাদিক যারা শুধু তারাই এক্রিডেশন কার্ড পাবেন। এছাড়া অনলাইনের রেজিস্ট্রেশন একটি চলমান প্রক্রিয়া।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের গণমাধ্যম স্বাধীনতা ভোগ করেছে। স্বাধীনতা থাকলে তা প্রয়োগের ক্ষেত্রে সচেতন হতে হয়। যার হাতে অস্ত্র থাকে, তিনি সব জায়গায় গুলি করতে পারেন না। তেমনি সাংবাদিকদের হাতে কলম আছে। তিনি হচ্ছেন কলমযোদ্ধা। তার কলমটি কোথায় ব্যবহার হবে সেই বিষয়টিতেও সতর্ক থাকতে হবে।

ওয়েজ বোর্ড না দেওয়ার বিরুদ্ধে পত্রিকার মালিক মামলা করেছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ওয়েজ বোর্ড যাতে বাস্তবায়ন করা না হয় সেজন্য পত্রিকার মালিকরাই মামলা করেছেন।

সুতরাং আমি মনে করি সমস্যা কোথায়, সেটা আপনারা জানেন। কোন মালিকরা মামলা করেছেন সেটিও আপনারা জানেন। আপনাদের ইউনিয়নের ইউনিটিও আছে।

আমি আশা করব যেখানে সমস্যা, সেই সমস্যার গোঁড়ায় আপনারা হাত দিবেন।আইন যাদের জন্য, তারা যেভাবে চাবেন সেভাবে হবে জানিয়ে সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, আইন প্রণয়নের ক্ষেত্রে পার্লামেন্টের স্ট্যান্ডিং কমিটির অনেক ক্ষমতা। আমি আইনমন্ত্রী ও আইন সচিবকে অন্তত ৫০ বার তাগাদা দিয়েছি। যেকোনো আইন কমিটিতে পরিবর্তন পরিমার্জন হতে পারে।

পাঠকের মতামত:

 
error: Content is protected !!