ঢাকা,বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢলে প্লাবিত লামার নিম্নাঞ্চল।। পানিবন্দী পাঁচ হাজার মানুষ

আলীকদমের সথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

লামা প্রতিনিধি ::  প্রবল বর্ষণে উপর থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে লামা পৌর এলাকাসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। মাতামুহুরী নদী, বিভিন্ন খাল ও পাহাড়ী ঝিরি সমুহের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রায় ৫ হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে। লামা-আলীকদম সড়কের লাইনঝিরি ও শিলেরতুয়া পয়েন্ট পাহাড়ি ঢলের পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় সন্ধ্যায় আলীকদমের সাথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে।

সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাত থেকে টানা ভারী বর্ষণের ফলে উপর থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বুধবার দুপুর থেকে লামা পৌরএলাকাসহ উপজেলার গজালিয়া, রুপসী পাড়া, লামা এবং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের নিম্মাঞ্চল সমুহ প্লাবিত হয়ে পড়ে। এসময় মাতামুহুরী নদী, লামা খাল, বমু খাল, ইয়াংছা খাল, বগাইছড়ি খাল ও পোপা খালসহ বিভিন্ন স্থানের পাহাড়ি ঝিরিগুলোতে অস্বাভাবিকভাবে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় গৃহবন্দি হয়ে পড়ে প্রায় ৫ হাজার মানুষ।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, টানা বর্ষণের ফলে পাহাড়ি ঢলে নদী, খাল ও ঝিরির পানি ফুঁসে উঠে লামা পৌর এলাকার নয়াপাড়া, বাস স্ট্যান্ড, টিএন্ডটি পাড়া, বাজারপাড়া, গজালিয়া জিপ স্টেশন, লামা বাজারের একাংশ, চেয়ারম্যান পাড়ার একাংশ, ছোট নুনারবিল পাড়া, বড় নুনারবিল পাড়া, উপজেলা পরিষদের আবাসিক কোয়ার্টার সমূহ, লামা থানা এলাকা, লাইনঝিরি নীচের এলাকা, শিলেরতুয়া, ছাগলখাইয়া, ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ইয়াংছা বাজারের একাংশসহ লামা ও রুপসীপাড়া ইউনিয়নের নিচু এলাকা প্লাবিত হয়।

এতে পৌর এলাকার হলিচাইল্ড পাবলিক স্কুল ও নুনারবিল সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি বেসরকারি সংস্থার কার্যালয়সহ দু’শতাধিক ঘরবাড়ি বন্যা কবলিত হয়ে পড়ে। লামা বাজারের একাংশ বন্যা কবলিত হয়ে পড়লে বাজারের ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

লামা পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সাইফুদ্দিন জানান, উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন টিএন্ডটি পাড়া এবং তৎসংলগ্ন এলাকার প্রায় ৪০ পরিবারকে লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্রে আশয় নেয়া হয়েছে। লামা পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন বাদশা জানান, তার ওয়ার্ড নয়াপাড়া এলাকার বন্যা প্লাবিতরা লামা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা ও লামা আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আশ্রয় গ্রহন করেছে।

৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ইউছুপ আলী জানান, পাহাড়ি ঢলের পানিতে লামা-আলীকদম সড়কের লাইনঝিরি এবং শিলেরতুয়া পয়েন্ট পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় আলীকদমের সাথে সড়ক যোগাযোগ সন্ধ্যা থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

লামা পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম চকরিয়া নিউজকে বলেন, প্লাবিত লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বন্যা কবলিতদের নিরাপদ আশ্রয়ে নেওয়ার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। আশ্রয় শিবিরগুলোতে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রীর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

পাঠকের মতামত: