ঢাকা,বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

সৌদিতে গত তিন সপ্তাহে ৫৪ বাংলাদেশির মৃত্যু

সৌদি আরব প্রতিনিধি ::   প্রাণঘাতী করোনা ও হৃদয়রোগের কবলে সৌদি আরবের মক্কা-মদিনা, জেদ্দা, দাম্মাম ও রাজধানী রিয়াদে গত তিন সপ্তাহে ব্যবধানে অন্তত ৫৪ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

তারা হলেন- ডাঃ আবদুর রহিম (৪৫), হোসেন চৌধুরী (৫৫), বেলাল উদ্দিন (৪৫), আবু তৈয়ব (৪৮), মোহাম্মদ ফারুক (৩৩), মোহাম্মদ আজিজ (৩৬), মুহাম্মদ মিন্টু মল্লিক (৪৩), জালাল মিয়া (৪০), মোহাম্মদ ইউনুচ (৪৩), কামাল উদ্দিন (৩৪), জাহাঙ্গীর আলম (৩৭), বেলায়াত হোসেন (৪২), ইউনুস ফকির (৪৯), মুহাম্মদ মুছা (৪৪), মোহাম্মাদ শামীম (৫২), রফিকুল ইসলাম (৪৬), মুহাম্মদ হারুন (৫৫), খলিলুর রহমান (৩৮), আনোয়ার হোসেন (৫২), মোহাম্মাদ রিওয়াজ (২৬), আমজাত হোসেন (৬৫), মোস্তাফা উদ্দিন (৩১), আলহাজ্ব ইসহাক জিরো (৪৯), মোহাম্মাদ দেলোয়ার (৪০), সাইফুল ইসলাম (৩০), বদিউল আলম (৩৩), তাজুল ইসলাম (৪১), মগির আহমদ (২৫), মোহাম্মদ নুরুল হক (৩৭), মোশেদুল আলী (৩৬), মোহাম্মদ আমিন (৪৫), মকবুল আহমদ (৪০), মোহাম্মদ আলী (৫০), মোহাম্মদ কবির (৫৩), মনির হোসেন (৪৩), মোহাম্মদ মিজান (২৬), মাসুদুর রহমান (৩৭), আইয়ুব আলী (৪৫) ও মনিরুল ইসলাম (৪২), মোহাম্মদ পারভেজ (৪১) ও মোজাম্মল ড্রাইবার (৪৮)।
এভাবে সৌদি আরবে আশ্কাজনক হারে প্রতিদিন করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে এবং হ্নদয়রোগে মারা যাচ্ছে সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশিরা।
গত তিন মাসে নিজ বাসা অথবা হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সৌদিতে ২৩৭ জন নিহত হলেও করোনা উপসর্গ ও হ্নদয়রোগে মারা গেছে অনন্ত ২৮৩ জন।
করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবের বিভিন্ন হাসপাতাল চিকিৎসাধীন আছে প্রায় সাড়ে ১১ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি।

সমগ্র বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মরণব্যধি রোগ করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পাইনি সৌদি আরব বরনছে হুহু করে প্রতিদিন বেড়ে চলছে এ মহামারি। গত ২ মার্চ থেকে প্রায় তিন মাস ধরে ব্যবসা বাণিজ্য ও সব আন্তজাতিক ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়ে সৌদির ১৩টি বড় শহরসহ সৌদি আরব জুড়ে কারফিউ জারি করেন দেশটির সরকার।

অন্যদিকে, ৩৭ জনের মৃত্যু, সৌদিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৩২৮৮ জন।
আজ ৯ জুন সবশেষ তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সৌদি আরবে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩,২৮৮ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০,৮,৫৭১ জন। মারা গেছে ৩৭ জন, এই নিয়ে দেশটিতে মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৮৩ জনে। অন্যদিকে সুস্থ হয়েছেন ১,৮১৫জন, দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৭৬,৩৩৯ জন। তথ্য সূত্রেঃ সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পাঠকের মতামত: