ঢাকা,শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

সেন্টমার্টিনের জেলেদের পাশে দাঁড়িয়েছে কোস্ট ট্রাস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আতংকে সেন্টমার্টিন দ্বীপের দরিদ্র জেলেদের জীবনে নেমে এসেছে দুর্যোগ। মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা থাকায় তাঁদের অয়ের পথ বন্ধ। ত্রাণ ব্যবস্থাও অপ্রতুল। মিলছে না বেসরকারি কোনও ত্রাণ সহায়তাও।
এদিকে, করোনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় উপকরণের দেখা দিয়েছে অভাব। এমন সময়ে দ্বীপটির জেলেদের পাশে দাঁড়ালো বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট। সংস্থাটি করোনা র্সংক্রমণ প্রতিরোধে স্থানীয় দরিদ্র ৯০টি জেলে পরিবারের মাঝে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করে।
জেলেদেরকে করোনা প্রতিরোধে সক্ষম করে তোলার জন্য ঢাকনাসহ এ্য্যলুমিনিয়ামের কলসি, গায়ে মাখা সাবান এবং লন্ড্রি সাবান দেওয়া হয়।
এ প্রসঙ্গে সেন্টমার্টিন ইউয়নিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বলেন, এ উপকরণে করোনা দুর্যোগের সময়ে জেলেদের খুবই উপকার হবে।
উল্লেখ করা যেতে পারে যে, কোস্ট ট্রাস্ট করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই কক্সবাজার জেলায় বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।
ব্যাপক সচেতনতা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে লিফলেট বিতরণ, বিভিন্ন হাসপাতালে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ ও স্থানীয় প্রশাসনে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
কোস্ট ট্রাস্ট টিয়ারফান্ডের সহায়তায় উখিয়া এবং টেকনাফ উপজেলার ৩২০০ পরিবারকে বিশেষ ত্রাণ দিচ্ছে।
এর আগে টেকনাফ উপজেলা প্রশাসনের ত্রাণ তহবিলে ২৫ হাজার টাকা দেয় কোস্ট ট্রাস্ট।
এছাড়াও জেলার সব উপজেলা প্রশাসনের করোনা তহবিলে আর্থিক অনুদান দিয়েছে দেশীয় এই সংস্থাটি।
করোনার শুরু থেকেই স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য ব্যাপক প্রচার চালিয়েছে কোস্ট ট্রাস্টের কর্মীরা।

পাঠকের মতামত: