ঢাকা,মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০

বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক ৮ কুকুর

অনলাইন ডেস্ক ::  বিশ্বস্ত ও অনুগত হিসাবে কুকুরের যেমন সুখ্যাতি আছে তেমনি পোষা কুকুরের প্রতি মানুষের ভালোবাসার অনেক দৃষ্টান্তও রয়েছে। কুকুরগুলি সাধারণত নিজ মালিকদের অনুগত, সহচর হয়ে থাকে। মানুষজন যখন নিজের বাড়ি থেকে দূরে থাকে, সে সময় কুকুরগুলো তাদের বাড়িটি দেখে রাখে এবং কোনো অচেনা লোক দেখলে তারা শব্দ করে ওঠে।

সাধারণভাবে প্রাণী প্রেমীদের জন্য যে প্রতিটি কুকুর বিভিন্ন কারণে বিপজ্জনক। এখানে ক্রম অনুসারে বিশ্বের বিপজ্জনক ৮ টি কুকুরের স্বভাব ও হিংস্রতার ধরন আলোচনা করা হলো।

১•পিটবুলঃ
গায়ক পিটবুলের কথা বলছি না, আমরা বলছি পিটবুল কুকুর সম্পর্কে। বিশ্বে যত ভয়ানক কুকুর আছে তাদের মধ্যে এই প্রজাতির কুকুর অন্যতম।এরা আমেরিকার সবচেয়ে ভয়ানক কুকুর। আসলে এই জাতটি স্বভাবের কারণে বেশ কয়েকটি দেশে নিষিদ্ধ! যদি আপনি পোষা প্রাণী হিসেবে পালন করতে চান এবং আনুগত্যকারী হওয়ার জন্য একে প্রশিক্ষণ দিতে হবে। তবে, এটি অবশ্যই নিশ্চিত ভালো প্রশিক্ষণ দিলে পিটবুল আপনার জীবনের অনুগত সহচর হবে। মূলত পুলিশের কাজে এদের ব্যাবহার করা হয়।

২•হাস্কিঃ
হাস্কি কুকুরগুলো দ্রুততর গতির এবং শক্তিতে ভরপুর। কারণ এরা তুষারসহ সব ধরনের পথ চলতে সক্ষম। পাহাড়ে ট্রেকিংয়ের কাজে এই জাতের কুকুর ব্যাবহার করা হয় বেশি। এই কুকুরগুলো ১৯৯৮ সালে ১৫ জন লোককে মারাত্মকভাবে আক্রমণ করেছিল।

৩•গ্রেট ডেনঃ
গ্রেট ডেনেসকে ড্যানিশ হাউন্ডও বলা হয়। এই কুকুরটির নাম এবং আকার এটিকে একে মহিমান্বিত করে তোলে। তবে সন্দেহ নেই যে গ্রেট ডেন বিশ্বের অন্যতম বিপজ্জনক কুকুর। গ্রেট ডেনস এর ক্ষিপ্রতা ভয় পাওয়াতে বাধ্য। তাদের আকার রীতিমতো ভীতিজনক ৮৬ সেমি লম্বা এবং ২০০ পাউন্ড ভারি। কিছু গ্রেট ডেনের দ্বারা মানুষকে ধর্ষণ করার ঘটনাও ঘটেছে, ২০০৩ সালে এরকম একটি ঘটনা ঘটেছিল, দক্ষিণ ক্যারোলাইনাতে এই কুকুরের আক্রমণে এক শিশু মারা গিয়েছিল।

৪. জার্মান শেফার্ড
বুদ্ধিমান, ভয়ডরহীন এইগুণগুলো রয়েছে জার্মান শেফার্ড এর মধ্যে। জার্মান শেফার্ডরা লম্বায় বেশি এবং কামড় দেওয়ার জন্যও যথেষ্ট খ্যাতি রয়েছে এদের। এরা ছোট প্রাণী এবং এমনকি মানুষকে এরা মেরে ফেলতে পারে। ২০১৩ সালে একটি ঘটনা ঘটেছিল, যেখানে একজন মহিলা তার প্রিয় জার্মান শেফার্ডের কামড়ে আক্রান্ত হন। তিনি দুইদিন পরে মারা যান।

৫•ম্যালামুট
ম্যালামুটগুলি অবিশ্বাস্যরূপে বিপজ্জনকও অনেক অনেক আরাধ্য প্রাণীর মতো। ম্যালামুটগুলি উচ্চ শিকারের ড্রাইভের জন্যও পরিচিত। ম্যালামুটসের সর্বশেষ রেকর্ড, ১৯৬৬ সাল থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত এদের ভয়াবহতার খবর ছড়িয়েছিল এবং সেই বছরগুলোতে ৫ টি মারাত্মক আক্রমণ করেছিল তারা।

৬•ডোবারম্যান পিনসার
ডোবারম্যান পিনসাররা সাধারণত পুলিশ কুকুর। আইন প্রয়োগকারীদের অনুগত সহযোগী হিসাবে পরিচিত। তালিকার অন্যান্য বিপজ্জনক কুকুরের জাতের তুলনায় খানিকটা কম বিপজ্জনক, তবে এখনও সাধারণভাবে ভয়ঙ্কর এরা। পরিচিত ব্যক্তিদের চেয়ে অপরিচিতদের প্রতি খুব আক্রমণাত্মক হয় এরা। এই জাতের কুকুর দ্বারা একটি মাত্র হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ডোবারম্যান পিনসচার তার মালিক, একজন বয়স্ক নারীকে হত্যা করেছিল।

৭•বক্সারঃ
প্রথম বিশ্বযুদ্ধের আগে, বক্সার কুকুরগুলোকে প্রহরী এবং আক্রমণকারী কুকুর হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছিল কারণ তাদের শক্তিশালী চোয়াল এবং উদ্বেগজনকভাবে বেদনাদায়ক কামড়ের জন্য বিশ্বখ্যাত।বক্সিং কুকুর পরিবারের জন্য দুর্দান্ত কারণ তারা শেষ পর্যন্ত আপনাকে রক্ষা করবে। ২০১৩ সালে বক্সিংয়ের আক্রমণে একটি মারাত্মক ঘটনা ঘটেছিল। যখন এর মালিক তার বক্সার এবং অন্য দুটি কুকুরের মধ্যে ঝগড়া থামানোর চেষ্টা করেছিলেন- তখন কুকুরটি আক্রময়াণ করে বসে।

৮•বুলমাস্টিফ
বুলমাস্টিফ সাধারণভাবে খুব বিপজ্জনক। পুরুষ বুলমাস্টিফগুলির ওজন ১৩০ পাউন্ড পর্যন্ত থাকে। বুলমাস্টিফগুলিও প্রাকৃতিক প্রহরী কুকুর, তাই আপনি তাদের আক্রমণাত্মক হওয়ার আশা করতে পারেন। ২০১৪ সালে বুলমাস্টিফের আক্রমণ করার দুটি ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে একটি নিউ জার্সিতে একটি ১৩ বছর বয়সী ছেলেকে হত্যা করেছিল।

ইন্টারনেট অবলম্বনে ফয়সাল রহমান

পাঠকের মতামত: