Home » কক্সবাজার » কক্সবাজার-২ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী ফরিদ না হামিদ ঘোষণা শনিবার?

কক্সবাজার-২ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী ফরিদ না হামিদ ঘোষণা শনিবার?

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

আহমদ গিয়াস, কক্সবাজার ::  কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী কি বিএনপি নেতা আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজুল্লাহ ফরিদ না জামায়াত নেতা এএইএম হামিদুর রহমান আযাদ তা চূড়ান্ত হবে আগামী শনিবার (৮ ডিসেম্বর)। বিএনপি ও জামায়াত সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।
বুধবার সন্ধ্যায় বিএনপি সারাদেশে চূড়ান্তভাবে যে দেড়শ’ জন প্রার্থীর মনোনয়ন ঘোষণা করে সেখানে কক্সবাজারের তিনটি আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হলেও কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনে কোনো প্রার্থী ঘোষণা করা হয়নি। এ আসনে ২৩ দলীয় জোটের প্রার্থী হিসাবে বিএনপি নেতা আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজুল্লাহ ফরিদ ও জামায়াত নেতা এএইএম হামিদুর রহমান আযাদ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এবং দুইজনের মনোনয়নপত্রই বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।
বুধবার সন্ধ্যায় বিএনপি’র কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে ঘোষিত তালিকায় কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে এডভোকেট হাসিনা আহমেদ, কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে লুৎফুর রহমান কাজল ও কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনে শাহজাহান চৌধুরীকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। অবশ্য আগেই এসব প্রার্থীর মনোনয়ন চূড়ান্ত করে গত মাসের চতুর্থ সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ে গোপনীয়তার সাথে তাদের হাতে তুলে দেয়া হয়। আগাম তারিখে স্বাক্ষরিত এসব মনোনয়নপত্রের কপি প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশও করে কিন্তু বুধবার সন্ধ্যায় ঘোষিত বিএনপির ১৫০ জন প্রার্থীর তালিকায় কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনটি নেই। আর এ আসনে চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা না করার বিষয়টি জামায়াতকে ছেড়ে দেয়ার ইঙ্গিত বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা জামায়াত ইসলামীর আমীর মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘কক্সবাজার-২ আসনে জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থী এএইচএম হামিদুর রহমান আযাদের প্রার্থীতা চূড়ান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে ইতোমধ্যে এবিষয়ে তার কথা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।
তিনি জানান, হামিদুর রহমান আযাদ স্বতন্ত্রভাবে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও ধানের শীষ প্রতীক নিয়েই নির্বাচন করবেন। এ বিষয়ে আইনী জটিলতা বা অন্য কোনো কারণে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে না পারলে তিনি অন্য কোনো প্রতীকে নির্বাচন না করে প্রয়োজনে নির্বাচন থেকে সরে যাবেন বলে জানান মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান জানান।
কক্সবাজার-২ আসনের নবম সংসদের এমপি জামায়াত নেতা হামিদুর রহমান আযাদ বর্তমানে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের আদালত অবমাননা মামলায় কারাগারে ৩ মাসের সাজা ভোগ করছেন। তার পক্ষে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জামায়াতের নেতাকর্মীরা। জামায়াত জেলার অন্য কোনো আসনে এবার মনোনয়নপত্র জমা দেয়নি। জামায়াত নেতারা এ আসনে হামিদুর রহমান আযাদকে ২৩ দলীয় জোটের প্রার্থী হিসাবেও দাবি করে আসছেন। একই দাবি করে আসছেন এ আসনের ৭ম ও ৮ম সংসদে নির্বাচিত এমপি বিএনপি নেতা আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজুল্লাহ ফরিদের সমর্থকেরা।
এবিষয়ে জেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আরা স্বপ্নার বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তের পর শনিবার (৮ ডিসেম্বর) জানা যাবে বলে জানান।
জাতীয় সংসদে আসন নং ২৯৫, কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) থেকে নবম সংসদে জোটের প্রার্থী হিসাবে দাড়িপাল্লা প্রতীক নিয়ে এমপি নির্বাচিত হন জামায়াতের এএইচএম হামিদুর রহমান আযাদ। তিনি পান ১ লাখ ৩ হাজার ৯৭১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগের প্রার্থী ড. আনছারুল করিম পান ৮৬ হাজার ৯৪৪ ভোট। দশম সংসদে এ আসন থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন বর্তমান এমপি আশেকউল্লাহ রফিক। তিনি এবারও নৌকার প্রার্থী। তার আপন চাচা, এ আসনের সাবেক এমপি বিএনপি নেতা আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজুল্লাহ ফরিদ সপ্তম ও অষ্টম সংসদের নির্বাচিত এমপি।
উল্লেখ্য, নবম সংসদে কক্সবাজার জেলার চারটি আসনের মধ্যে ২টি বিএনপি, একটি জামায়াত ও একটিতে আওয়ামীলীগের প্রার্থী বিজয়ী হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনা, সঙ্গে থাকবে ম্যাজিস্ট্রেট

It's only fair to share...41600ডেস্ক নিউজ :: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে সশস্ত্র ...

error: Content is protected !!