Home » পার্বত্য জেলা » লামায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালন

লামায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালন

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা ::    দেশের অন্যান্য স্থানের মতো বান্দরবানের লামায় শনিবার (১৩ অক্টোবর) নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালন করা হয়েছে। এবারে দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে “কমাতে হলে সম্পদের ক্ষতি, বাড়াতে হবে দুর্যোগের পূর্ব প্রস্তুতি”।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও এনজিও কারিতাস এর স্যাপলিং প্রকল্পের সহযোগিতায় আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, র‌্যালী, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে র‌্যালীতে অংশ নেয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনুর রহমান এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লামা উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইনু অং চৌধুরী। আরো উপস্থিত ছিলেন, লামা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সাইফুদ্দিন, স্যাপলিং প্রকল্পের ডিআরআর এন্ড ওয়াস অফিসার এস.এম জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন সেলিম, নুনারবিল সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহেদ সারোয়ার, লামা ফায়ার সার্ভিসের লিডার মোজাম্মেল হক সহ প্রমূখ।

আলোচনায় সভায় দুর্যোগের সার্বিক বিষয় তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনুর রহমান। তিনি বলেন, ভৌগোলিক অবস্থানগত কারণে বন্যা, ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস ও ভূমিকম্পের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে এসব দুর্যোগ বাড়ছে। পাশাপাশি রয়েছে অগ্নিকান্ড ও দূষণজনিত মানবসৃষ্ট দুর্যোগ। এসব দুর্যোগ মোকাবেলা ও তার ক্ষয়ক্ষতি কমাতে দুর্যোগপূর্ব প্রস্তুতি গ্রহণ অত্যন্ত জরুরি। সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ফলে বাংলাদেশ এখন দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষম দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি লাভ করছে।

প্রধান অতিথি বলেন, জনসচেতনতার জন্য দুর্যোগ মোকাবিলার কৌশলগুলো জনগণকে অবহিত করাই এ দিবসের মূল লক্ষ্য। দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ উত্তরোত্তর সাফল্য অর্জন করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনগুলোর অবদান অনস্বীকার্য।

পরিশেষে গত ১০ অক্টোবর দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ার ১৭টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ডাক্তার নেই জরুরি চিকিৎসাসেবা বঞ্চিত প্রত্যন্ত এলাকার মানুষ

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া :: কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ১৮ ইউনিয়নের মধ্যে চিরিঙ্গা ...