Home » মহেশখালী » মাতারবাড়ীতে গৃহবধু হত্যার ঘটনা ৪০দিন অতিবাহিত ॥ ঘাতক পলাতক

মাতারবাড়ীতে গৃহবধু হত্যার ঘটনা ৪০দিন অতিবাহিত ॥ ঘাতক পলাতক

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

আবদু ছালাম কাকলী : মহেশখালীতে গৃহবধু লাশ উদ্বারের ঘটনা ৪০ দিন অতিবাহিত হলেও ঘটনার মূল নায়ক এখনো গ্রেপ্তার হয়নি। ফলে ঘটনাটি ধামাচাঁপা পড়ে যাওয়ার আশংখা করেছেন নিহতের পরিবার।

সূত্রে জানান, কুতুবদিয়া উপজেলার আলী ফকির এলাকার বাসিন্দা রফিক আহমদের কন্যা কুলসুমার সাথে মহেশখালী উপজেলার মাতার বাড়ী ইউনিয়নের সাতঘর পাড়ার সামশুল আলমের পুত্র ফয়সালের সাথে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে একটি ছেলে ও একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তাদের সংসার জীবনে কোন ধরণের ঝগড়া না ঘটলেও গত ১২ জুন থেকে উক্ত গৃহবধু শাশুর বাড়ী থেকে নিখোঁজ হয়ে যান। পরদিন ১৩ জুন সকালে নিহত গৃহবধুর স্বামী ফয়সাল মহেশখালী থানায় এক খানা জিডি করতে যান।

এ অবস্থায় নিখোঁজ গৃহবধুর লাশ মাতারবাড়ী আইডিয়াল স্কুল সংলগ্ন একটি চিংড়ি মাছের ঘের থেকে জন গণের সহায়তায় মাতারবাড়ী পুলিশ উদ্বার করে। এই সংবাদ পেয়ে স্বামী ফয়সাল তার অন্যান্য সহযোগী নিয়ে থানায় থেকে পালিয়ে যায়।

বিষয়টি সন্দেহ হওয়ায় গৃহবধুর শশুর-শশিুড়ীও ননদকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে প্রেরণ করেন মাতারবাড়ী পুলিশ। এঘটনায় নিহত গৃহবধুর ভাই বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে মূল নায়ক নিহত গৃহবধুর স্বামী ফয়সাল এখনো পলাতক রয়েছে। এদিকে এ ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে একটি মহল অন্যান্যদেরকে ফাঁসানোর জন্য বিভিন্ন স্থানে জোর তদবীর চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পুলিশ হেডকোয়ার্টারে বসে কারচুপির ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে : মির্জা ফখরুল

It's only fair to share...37400নিউজ ডেস্ক ::   বিএনপি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, পুলিশ ...

error: Content is protected !!