Home » কক্সবাজার » মেয়র মকছুদ মিয়ার ‘অত্যাচারে’ অতিষ্ঠ স্পীডবোট চালকদের মানববন্ধন

মেয়র মকছুদ মিয়ার ‘অত্যাচারে’ অতিষ্ঠ স্পীডবোট চালকদের মানববন্ধন

It's only fair to share...Share on Facebook215Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

বার্তা পরিবেশক :
কক্সবাজার-মহেশখালী নৌ-রুটে চলাচলকারী স্পীট বোটের এক চালকের উপর মহেশখালী পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া ও তার লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে মানব্বন্ধন করেছে স্পীট বোট চালক ও মালিকরা। সোমবার বেলা এগারটার দিকে শহরের শহীদ স্মরণী সড়কে এ মানব্বন্ধন কর্মসূচী পালন করে তারা।
স্পীটবোট মালিক সমিতি সুত্রে জানাযায়, দীর্ঘদিন যাবৎ ফ্রিতে স্পীটবোটে আসা-যাওয়া করার পরও মহেশখালী পৌরসভার মেয়র ও মকছুদ মিয়ার স্পীটবোট চালকদের তার সন্ত্রাসীদের দিয়ে হামলা ও মারধর করে গুরুতর আহত করছে। বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগ দেওয়া এই মেয়রের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ স্পীটবোট চালকরা। মেয়র নিজেই ফ্রিতে আসা-যাওয়ার পাশাপাশি তার সারথীরাও আসতে চাই ফ্রিতে। এমন অবস্থায় মাঝে মধ্যে স্পীটবোট চালকরা তার সারথীদের ফ্রিতে আনতে না চাইলে স্পীটবোট চালকদের মারধর করে তারা।
স্পীট মালিক সমিতির নেতারা বলেন, মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া ও তার সাথে থাকা সন্ত্রাসীরা স্পীট বোট চালক শহিদুল্লাহকে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় সাংসদকে বিচার দিয়েও কোন প্রতিকার না পেয়ে আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। গত বৃহস্পতিবার মহেশখালী পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া স্পীট বোট যোগে মহেশখালী জেটিঘাটে পৌছায় তখন আমারদের চালক শহিদুল্লাহ যাত্রী নামাচ্ছিল। তখন মকছুদ মিয়া তাকে স্পীট বোট সরাতে বলে। তখন শহিদুল্লাহ মকছুদ মিয়াকে বলেন সব যাত্রী নেমে গেলেই সরিয়ে নিচ্ছি। এ কথা বলার সাথে সাথে মকছুদ মিয়া ও তার সারথীরা স্পীট বোট চালকের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে।
মালিক সমিতির নেতারা আরও বলেন, বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগ দেওয়া রাজাকারপুত্র মকছুদ এখন স্পীটবোট চালকদের উপর নানা অত্যাচার চালাচ্ছে। মকছুদ মিয়ার অত্যাচার থেকে বাঁচতে আমরা আজ রাস্তায় নেমেছি। তার অত্যাচার থেকে আমরা মুক্তি চাই। অন্যতায় অনির্দিষ্টকালের জন্য কক্সবাজার-মহেশখালী নৌরুটে স্পীটবোট চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে।
এসময় মানব্বন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার জেলা স্পীটবোট চালক সমবায় সমিতির সভাপতি এস এম হেলাল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ দিদারুল ইসলাম, লাইনম্যান মোহাম্মদ বাবুল, মোহাম্মদ মুফিজ ও মোহাম্মদ হায়দারসহ হাজারো চালক ও শ্রমিকরা।
এরপর কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের কাছে স্মারকলিপি দেন স্পীটবোট মালিক ও চালক সমিতির নেতারা। তাদের দাবি স্পীটবোট চালকদের নিরাপত্তা ও হামলাকারী পৌর মেয়র মকছুদ মিয়ার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দারুল ইহসানের সার্টিফিকেটের বৈধতা দিতে রাজি নয় ইউজিসি

It's only fair to share...21500ডেস্ক নিউজ ::সম্প্রতি বন্ধ হয়ে যাওয়া বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় দারুল ইহসানের সার্টিফিকেটের ...