ঢাকা,মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

১৮ বছর হলেই পাওয়া যাবে টিকা

অনলাইন ডেস্ক :: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, ১৮ বছর বয়সের ঊর্ধ্বের যেকোনো নাগরিক জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে কেন্দ্রে গেলেই তাকে টিকা দেওয়া হবে। আজ মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে চলমান বিধি-নিষেধ নিয়ে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। এ সময় তিনি ৫ আগস্টের আগে শিল্পকারখানা খোলা হবে না বলে জানান।

তিনি বলেন, সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। ফ্রন্টলাইনারদের পরিবারের সদস্য, যাদের বয়স ১৮ বছর, তারা সবাই টিকার আওতায় আসবে।

মন্ত্রী বলেন, যাদের বয়স ৫০ এর বেশি তাদের সংক্রমণের হার ৭৫ শতাংশ; অথচ এদের মধ্যে টিকা নেননি ৯০ শতাংশ। ৫০ ঊর্ধ্ব সব নাগরিককে টিকার আওতায় আনতেই হবে।

বৈঠকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ পুলিশ, বিজিবি, আনসার, চারটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। সঙ্গে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনী প্রধানদের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, করোনার টিকা দেওয়ায় গতি বাড়াতে আগামী ৭ আগস্ট থেকে দিনে সাড়ে আট লাখ করে প্রতি সপ্তাহে ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। এজন্য দেশে বিদ্যমান সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) কার্যকর করা হবে কভিড টিকার ক্ষেত্রেও। গ্রাম পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিক, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অন্য অস্থায়ী টিকাদান কেন্দ্র গুলোকেও কাজে লাগানো হবে। স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের কর্মীরাও টিকাদান কার্যক্রমে অংশ নেবেন।

পাঠকের মতামত: