ঢাকা,শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

ইউএনও'র অভিযানে ৫ পিকআপ কাঠ জব্দ

রামুতে সামাজিক বনায়ন উজাড় করছে বনদস্যু চক্র

সোয়েব সাঈদ, রামু ::
রামুতে উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের যৌথ অভিযানে ৫ পিকআপ কাঠ জব্দ করা হয়েছে। সোমবার (৬ মার্চ) বিকেলে উপজেলার পানেরছড়া রেঞ্জের বাইন্যাকাটা মোহাম্মদ হোসেন ঘোনা নামক গহীন পাহাড়ে রামু উপজেলা নির্বাহি অফিসার ফাহমিদা মুস্তফার নেতৃত্বে বনকর্মীরা এসব গাছ জব্দ করেন।
বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের পানের ছড়া রেঞ্জের অধীনে বাইন্যাকাটা মোহাম্মদ হোসেন ঘোনা নামক এলাকায় সমাজিক বনায়নের গাছ কর্তন করছে স্থানীয় বনদস্যুরা। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পানের ছড়া বিট কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গেলে বনদস্যুরা তাকে ধারালো দা দিয়ে আক্রমণ করতে উদ্যত হয়। এসময় বিট কর্মকর্তা আত্মরক্ষার্থে পিছু সরে যান। পরে রামু উপজেলা নির্বাহি অফিসার ও বন বিভাগের বিভিন্ন রেঞ্জের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছলে বনদস্যুরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ কর্তনকৃত গাছ জব্দ করে পানের ছড়া রেঞ্জের হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়।
পানেরছড়া বিট কর্মকর্তা হোসেল জানান, সমাজিক বনায়নের গাছ কর্তন করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে স্থানীয় চিহ্নিত বনদস্যু ও একাধিক বন মামলার আসামি মোস্তাক ও আলী আহমদ সহ অজ্ঞাত আরো কয়েক জন তার উপর হামলার চেষ্টা চালায়। এ ব্যাপারে রামু উপজেলার নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও)’র সহযোগিতা চাইলে তিনি নিজে উপস্থিত হয়ে আনসার ও বন বিভাগের সমন্বয়ে যৌথ অভিযান চালান। অভিযানে ৫ পিকআপ ছোট-বড় কাঠ জব্দ করা হয়।
রামু উপজেলা নির্বাহি অফিসার ফাহমিদা মুস্তফা বলেন- বন কর্মকর্তাদের উপর হামলার চেষ্টা করছে এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছলে বনদস্যুরা পালিয়ে যায়। বনখেকোদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে  নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

পাঠকের মতামত: