ঢাকা,রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

বঙ্গবন্ধু জেলা ফুটবল লীগ

শেখ জামাল চকরিয়া ক্লাবের জয়যাত্রা অব্যাহত, ঢেমুশিয়ার হোঁচট

এম.এ আজিজ রাসেল :: বঙ্গবন্ধু জেলা ফুটবল লীগে সুপার সিক্সে মুখোমুখি হবে দুই শক্তিশালী শেখ জামাল ক্লাব চকরিয়া বনাম ঢেমুশিয়া ক্রীড়া সংস্থা। তাই বুধবার কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে ছুটে আসে দু’দলের দর্শক ও ফুটবল প্রেমীরা। বিকাল ৩ টা ২০ মিনিটে পরিচিতি পর্ব শেষে জাতীয় সংগীত ও ফিফা থিম সং বাজিয়ে শুরু হয় খেলা। দু’দলই মাঠজুড়ে আলো ছড়ায়। কিন্তু গোলের দেখা পাচ্ছিল না কেউ। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে উত্তেজনাও দ্বিগুণ হয়। তবে হতাশা প্রতীক্ষা শেষ হয় ম্যাচের ৪৫ মিনিটে। এসময় শেখ জামালের ফরোয়ার্ড সৈনিক টুকনো শটে বোকা বানায় ঢেমুশিয়ার গোল রক্ষক মোবারককে। প্রথমার্ধ শেষে ফলাফল ১—০। দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালায় ঢেমুশিয়া। কিন্তু প্রতিপক্ষের ডি—বক্সে গিয়ে ভেস্তে যায় তাদের সব আক্রমণ। তারমধ্যে আবারও চড়াও হয় শেখ জামালের সৈনিক। ৭০ মিনিটে কাউন্টার এ্যাটাক থেকে বল পেয়ে দলকে ২—০ গোলে এগিয়ে নেয় সে। এরপর ৮০ মিনিটে বাজিমাত করে শেখ জামালের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আইকে। তাঁর দুর্দান্ত গোলে শেখ জামাল এগিয়ে যায় ৩—০ তে। ঢেমুশিয়া শিবির তখন নিরব। তবে সেই নিরবতা খানিক দূর হয় খেলা শেষ হওয়ার ৩ মিনিট আগে। এসময় ঢেমুশিয়ার পক্ষে একমাত্র গোলটি করে আরেক নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এমেকা। তবে খেলা শেষে হাসিটা শেখ জামালের। সুপার সিক্সে টানা দুই ম্যাচ জয় পেয়ে ৬ পয়েন্ট জমা হয় তাদের ঝুলিতে। এতে বেশ উৎফুল্ল জয়ের নায়ক সৈনিক ও টিমের স্বপ্নদ্রষ্টা আলহাজ¦ ফজলুল করিম সাঈদী।

ঢেমুশিয়া ক্রীড়া সংস্থা: মোবারক, রফিক, রিসার্ড, হেলাল, হারুন, ইতু, হুমায়ুন, চৌকো, নেওয়াজ, হানিফ, এমেকা, সুজন, সাগর, ইকবাল, পিকু, মেসি ও নুরুল আলম। ম্যানেজার হারুন ও কোচ প্রিন্স।

শেখ জামাল ক্লাব চকরিয়া: সাঈদী, জিয়া, বামবা, আরিফ, সালাহ উদ্দিন, জাহাঙ্গীর, সাফি, ইডনেজ, দিদার, সৈনিক, সাগর, রুহুল আমিন, রাফু, রিয়াদ, রানা, ওপেল, আইকে, সোহাগ ও শহীদুল। ম্যানেজার রাহাত ও কোচ নুরুল আবছার।

ম্যাচ রেফারি: জি.এম চৌধুরী নয়ন, বোরহান উদ্দিন, রবিউল করিম ও মোঃ সাইফ। বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হবে খুরুশকুল ক্রীড়া সংস্থা বনাম মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়া সংসদ চকরিয়া।

পাঠকের মতামত: