ঢাকা,বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২

আক্রান্ত অর্ধশতাধিক

লামার দুর্গম ম্রো পল্লীতে ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :: লামা উপজেলার রুপসী পাড়া ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকার ৩টি ম্রো পল্লীতে ডায়রিয়া রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। ৩ পাড়ায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় অর্ধ শতাধিক। সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রুপসী পাড়া ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় ম্রো জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত কম্পং ম্রো পাড়া, অংভাইং ম্রো পাড়া ও মেনতুই ম্রো পাড়া পাড়ায় গত কয়েকদিন ধরে ডায়রিয়া রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। গতকাল সোমবার ভোর রাতে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মেনতুই ম্রো পাড়ার বাসিন্দা মাংসিং ম্রো (৫০) এর মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে ৩ পাড়ায় শিশু, বৃদ্ধসহ প্রায় অর্ধশতাধিক আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে দুই শিশুসহ ৫জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এরা হলেন- তুম্পং ম্রো (২৫), মাংপুং ম্রো (৫০) তুংসি ম্রো (৪৫), রুইলে ম্রো (১) ও কানদুম ম্রো (১) । এছাড়া ৮ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছে। রুপসী পাড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য লংপাং ম্রো জানান, ৩ পাড়ায় ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দেয়ার বিষয়টি রূপসীপাড়া সেনা ক্যাম্পে অবহিত করলে সেখান থেকে একটি মেডিকেল টিম প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে সেনাবাহিনীর মেডিকেল টিমটি ডায়রিয়া কবলিত এলাকায় প্রয়োজনীয় ওষুধসহ চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে।

লামা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মঈনুদ্দিন মোর্শেদ চকরিয়া নিউজকে জানান, ম্রো পল্লীতে ডায়রিয়ার প্রকোপের খবর পাওয়ার সাথে সাথে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ওষুধসহ একটি টিম পাঠানো হয়েছে। ডায়রিয়া যেহেতু পানি বাহিত রোগ তাই সেখানে পর্যাপ্ত পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেটও পাঠানো হয়েছে। এছাড়া হাসপাতালে আগত রোগীদের প্রয়োজনীয় সকল ধরনের চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, প্রতিবছর শুষ্ক মৌসুম এলেই পাহাড়ি পল্লী গুলোতে বিশুদ্ধ পানির সংকট চরম আকার ধারণ করে। এসময় পাহাড়ি পল্লীর বাসিন্দারা বাধ্য হয়ে ঝিরির নোংরা, দূষিত পানি পান করা ও পারিবারিক কাজে ব্যবহার করার ফলে পানি বাহিত নানান রোগে আক্রান্ত হয়।

 

পাঠকের মতামত:

 
error: Content is protected !!