ঢাকা,শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

আ:লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু মুসার বাসার গৃহকর্মী

চকরিয়ায় মার্কেটের ছাদে বিদ্যুৎ লাইনে স্পৃষ্ট হয়ে কিশোরী গৃহপরিচারিকার মৃত্যু

এম জিয়াবুল হক, চকরিয়া ::
কক্সবাজারের চকরিয়ায় একটি বাণিজ্যিক মার্কেটের ছাদে উঠে মোবাইলে কথা বলার সময় বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে আশরাফুল জন্নাত এ্যানি (১৬) নামে এক কিশোরী গৃহপরিচারিকার মৃত্যু হয়েছে।
আজ শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুর ১টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার আর্মিক্যাম্প সড়কে চকরিয়া মহিলা কলেজের সামনে সায়মা প্লাজা নামের একটি বাণিজ্যিক মার্কেটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত কিশোরী আশরাফুল জন্নাত এ্যানি চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু মুসার বাসার গৃহকর্মী ছিলেন। এ্যানি কুতুবদিয়া উপজেলার বড়ঘোপ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড দক্ষিণ আমজাখালী গ্রামের মো. শামীম এর মেয়ে।

প্রত্যক্ষর্দশী লোকজন জানান, শুক্রবার দুপুরে সায়মা প্লাজা মার্কেটের তৃতীয়তলার বাসা থেকে বের হয়ে কিশোরী গৃহপরিচারিকা এ্যানী মোবাইলে কথা বলছিলেন। এসময় বাসার পাশাপাশি থাকা ৩৩ হাজার হাই ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনের স্পৃষ্ট হয়ে তারের সঙ্গে আটকা পড়েন ওই কিশোরী।
ঘটনার পর পর প্রত্যক্ষর্দশী লোকজনের সহায়তায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরাএগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

এলাকাবাসি জানিয়েছেন, একইধরনের ঘটনায় সায়মা প্লাজা মার্কেট লাগোয়া ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ তারে জড়িয়ে ইতোপূর্বে আরও একজন নারী নিহত হন। এরপরও মার্কেট লাগোয়া হাই ভোল্টেজ বিদ্যুৎ লাইনটি অপসারণে কোনধরণের উদোগ নেয়নি বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ও মার্কেট মালিক কতৃপক্ষ।

অপরদিকে সায়মা প্লাজা মার্কেটের উপর দিয়ে হাই ভোল্টেজ বিদ্যুৎ লাইন থাকলেও নিরাপত্তার কোন ব্যবস্থা না থাকায় সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এইজন্য মার্কেট কতৃপক্ষকে দায়ী করছেন স্থানীয় লোকজন।

অভিযোগ উঠেছে, ৩৩ হাজার হাই ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনে এরিয়া ঘেঁষে সায়মা প্লাজা মার্কেটটি ইতোপূর্বে নির্মাণ করেন চট্টগ্রামের একটি ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান। ওইসময় বিদ্যুৎ বিভাগ রহস্যজনক কারণে কোনধরনের বাঁধা বিপত্তি দেয়নি। এই অবস্থার ফলে এখন বিদ্যুৎ লাইনে স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনাগুলো বেড়ে চলছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এলাকাবাসি অনতিবিলম্বে মার্কেট লাগোয়া হাই ভোল্টেজ বিদ্যুৎ লাইনের খোলা তারের অপসারণে জোরালো দাবি জানিয়েছেন।

চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) অরুপ কুমার চৌধুরী বলেন, নিহত কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পাঠকের মতামত: