ঢাকা,শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

চকরিয়ায় যুবলীগ নেতা খুনের আসামি আর্মি ইউছুপ বগুড়া থেকে গ্রেফতার

এম জিয়াবুল হক, চকরিয়া ::
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার আলোচিত যুবলীগ নেতা পারভেজ বাবু খুনের মামলার এজাহারনামীয় প্রধান আসামি ইউছুপ আলী প্রকাশ আর্মি ইউছুপকে পাঁচমাস পর বগুড়া থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়া র‍্যাব ১২ এর একটি চৌকস টিম বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর থানা এলাকা থেকে মোবাইল টেকিংয়ের মাধ্যমে গ্রেফতার করেছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চকরিয়া থানার এসআই মেহেদী হাসান।
নিহত পারভেজ বাবু চকরিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের তরছপাড়া এলাকার নাজেম উদ্দিনের ছেলে। তিনি ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। অপরদিকে গ্রেফতারকৃত ইউছুপ আলী একই গ্রামের মৃত ইছহাক আহমদ এর ছেলে। নিহত পারভেজ বাবু ও খুনী ইউছুপ আলী সম্পর্কে আপন চাচা-ভাতিজা।

স্থানীয় লোকজন জানান, চকরিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের তরছপাড়া এলাকান মৃত ইছাহাক আহমদের ছেলে ইউছুফ আলী কয়েক বছর পূর্বে সেনা বাহিনীর চাকরি থেকে অবসর নিয়ে বাড়িতে বসবাস করছেন। এলাকায় ফিরে তিনি জায়গার ব্যবসার নামে নানাভাবে সাধারণ লোকজনের বাড়িভিটা ও সরকারি খাসজমি দখল চেষ্টায় লিপ্ত ছিলেন। স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলে এসব অর্পকম করতেন ইউছুপ।

এরই মধ্যে পেশিশক্তির দাপট দেখিয়ে ভাইয়ের পরিবারকে বিতাড়িত করে পারিবারিক জায়গা দখলে নিতে তোড়জোড় শুরু করেন আর্মি ইউছুপ। এতে বাঁধা হয়ে দাঁড়ান আপন ভাতিজা যুবলীগ নেতা পারভেজ বাবু।

নিহত পারভেজ বাবুর বাবা নাজেম উদ্দিন জানান, চলতিবছরের গত ৫ জুলাই সকালে আমার ক্রয়কৃত জমি দখল করতে দলবল নিয়ে মহড়া দেয় আপন ছোট ভাই মোহাম্মদ ইউছুফ আলী। ওইসময় দখলে বাধা দিতে গেলে আমার ছেলে পারভেজ বাবুর উপর অর্তকিতভাবে দেশীয় অস্ত্রস্বস্ত্র নিয়ে হামলা করে সন্ত্রাসীরা। ঘটনার একপর্যায়ে তাঁরা পারভেজ বাবুর মাথায় কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে।
মারাত্মক আহত অবস্থায় আমার ছেলে পারভেজ বাবুকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। চমেক হাসপাতালে টানা ১১দিন চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় মারা যান পারভেজ বাবু।

এ ঘটনায় নিহত যুবলীগ নেতা পারভেজ বাবুর পিতা নাজেম উদ্দিন বাদি হয়ে চকরিয়া থানায় ওইসময় ৮জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এজাহারে আর্মি ইউছুপকে এক নম্বর আসামি করা হয়। তবে ঘটনার পর পাঁচমাস পেরিয়ে গেলেও মামলার এজাহারনামীয় আসামি গ্রেফতার হচ্ছে না বলে নিহতের পরিবার বারবার অভিযোগ তুলেন। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়া থেকে র‍্যাবের অভিযানে হত্যা মামলার এক নম্বর আসামি আর্মি ইউছুপকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চকরিয়া থানার এসআই মেহেদী হাসান বলেন, পারভেজ বাবু হত্যা মামলার এজাহারনামীয় প্রধান আসামি ইউছুপ আলী বর্তমানে বগুড়া র‍্যাব ১২ এর হেফাজতে রয়েছে। এখন আদালতের মাধ্যমে তাঁকে চকরিয়া থানায় নিয়ে আনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

পাঠকের মতামত: