ঢাকা,বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

চকরিয়ায় চিরকুটসহ আবাসিক হোটেল থেকে  যুবকের মরদেহ উদ্ধার, দুইজন আটক 

এম জিয়াবুল হক, চকরিয়া  :: কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরশহরের আবাসিক হোটেল থেকে মো. মহিউদ্দিন (১৮) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪টার দিকে চকরিয়া থানা পুলিশ আবাসিক হোটেলের দরজা ভেঙ্গে মরদেহ উদ্ধার করে। মহিউদ্দিন রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের জুমছড়ি এলাকার পেয়ার মোহাম্মদের ছেলে।

জানা যায়, গত দুই দিন আগে চকরিয়া পৌরশহরের চিরিঙ্গা সিটি পার্ক নামে একটি হোটেলে অবস্থান করে মহিউদ্দিন। দুপুরে রুম ছেড়ে দেয়ার কথা থাকলেও দরজা বন্ধ থাকায় হোটেল বয় দরজা ধাক্কা দিয়ে খুলতে বলে। কিন্তু কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে জানালা দিয়ে উকি মেরে দেখা যায় খাটের উপর তার মরদেহ পড়ে থাকে। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে থেকে মহিউদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে।

মহিউদ্দিনের বড় বোন শাহজাদা বেগম বলেন, আমার ভাই বাসের হেলপার ছিল। গত বৃহস্পতিবার সে চট্টগ্রামের ভাড়া বাসা থেকে বের হয়। তার বাসা থেকে ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দুই বন্ধু হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ এনে তিনি চকরিয়া এসেছিলেন। পরে আমাকে ফোনে তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে জানায়। এ ঘটনায় শুক্রবার চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের মোজাহের পাড়ার আবদুল করিম ও মো. ইছমাইল নামের দুই যুবককে আসামী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।  পরে চকরিয়া থানা পুলিশ ওই দুই যুবককে গ্রেফতার করে। পরে শনিবার দুপুরে হোটেল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এসময় মরদেহের পাশে একটি প্যাড়ে তার হাতের লেখা চিরকুট উদ্ধার করা হয়।

তার নাকে-মুখে ফেনা দেখা যাচ্ছে। সাথে বিষের গন্ধও রয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে রহস্য উন্মোচন করা যাবে।

পাঠকের মতামত: