ঢাকা,রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১

চকরিয়ার ব্যবসায়ী গোপাল কান্তির স্বর্ণের বার

স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় আরও এক পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক :: ফেনীতে ডিবি পুলিশ কর্তৃক স্বর্ণ ডাকাতির মামলায় এস আই ফিরোজ আলম নামের আরও এক পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। গতকাল বুধবার বিকেলে তাকে ফেনীর আদালতে তোলা হয়।
এর আগের দিন রাতে তাকে নোয়াখালী থেকে গ্রেফতার করা হয়। এসআই ফিরোজ চট্টগ্রাম কোতোয়ালীর ডিবিতে উপ পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পিবিআই পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহ আলম জানান, ৮ জুলাই ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর ফতেহপুর এলাকায় গোপাল কান্তি নামে চট্টগ্রামের চকরিয়ার এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ডিবি পুলিশ কর্তৃক ২০টি স্বর্ণের বার লুটের অভিযোগে ১০ জুলাই ওই ব্যবসায়ী ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন। খবর বাংলানিউজের।
এ ঘটনায় সাবেক ডিবির ওসি সাইফুল ইসলামসহ তিন উপপরিদর্শক ও দুই সহকারী উপপরিদর্শক গ্রেফতার হয়। এসময় ডিবির ওসির বাসভবন থেকে লুট করা ১৫টি বার উদ্ধার করে পুলিশ। পরে জানা যায়, এসআই ফিরোজ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। কিন্তু তিনি কর্মস্থলে ছিলেন না। অসুস্থতার কারণে গ্রামের বাড়িতে ছিলেন। তিনি আরও জানান, ঘটনার দিন এসআই ফিরোজ চট্টগ্রাম থেকে ফেনীর ডিবির ওসিকে তথ্য দেন এবং মোট স্বর্ণ থেকে একটি ভাগ এসআই ফিরোজ পাবে বলে তাদের মধ্যে কথা হয়েছিল। এমন অভিযোগে তাকে নোয়াখালী থেকে আটক করা হয়। পরে বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে আটক এস আই ফিরোজ আলমকে ফেনীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ধ্রুব জ্যোতি পালের আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। কারাগারে নেওয়ার সময় এসআই ফিরোজ সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, তিনি নির্দোষ-তাকে ফাঁসানো হচ্ছে। ঘটনার দিন তিনি খবর পেয়ে ডিবির ওসিকে শুধুই স্বর্ণ পাচারের তথ্য জানিয়েছিলেন।

পাঠকের মতামত: