ঢাকা,মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

উখিয়ায় স্বামীর ঘরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

ফারুক আহমদ, উখিয়া ::  উখিয়া রত্মাপালংয়ের ভালুকিয়া গ্রামে কাবেরী প্রভা বড়ুয়া (২৬) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। সোম বার সকালে ৫ অক্টোবর স্বামী উপেল বড়ুয়ার বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটেছে। তবে এটি হত্যা নাকি আত্ব হত্যা এ নিয়ে চলছে নানা সমালোচনা।

থানার ডিউটি অফিসার জানান, গৃহবধু কাবেরীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে প্রেরন করা হয়। পারিবারিক সূত্রে জানা যায় , ময়না তদন্ত শেষে সন্ধ্যায় নিহত গৃহবধূরর দেহ ক্রিয়া সৎকার করা হয়েছে।

জানা গেছে, গৃহবধূর স্বামীর নাম উপেল বড়ুয়া। তিনি ওই এলাকার মৃত সন্তোষ বড়ুয়ার পুত্র। পেশায় সিএনজি চালক।
স্থানীয় ইউপি মহিলা সদস্য আঞ্জুমান ইয়াসমিন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন গৃহবধূর মৃত্যুর পিছনে পারিবারিক কলহের দ্বন্দ্ব ছিল। তাদের সংসারে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে।

ইউপি সদস্য মাহবুব আলম ঘটনাটি শুনেছেন বলে সাংবাদিকদেরকে নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়় প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেে পারিবারিক কলহ দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছিল। গত রবিবার রাতে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে স্বামী উপেন বড়ুয়া স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান ভোরের দিকে মুমূর্ষ ও অজ্ঞান অবস্থায় গৃহবধূ কাবেরী বড়ুয়াকে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় পরিবারের লোকজন। জরুরি বিভাগের কর্মরত মেডিকেল অফিসার জানান হাসপাতালে আনার আগেই গৃহবধূর মৃত্যু হয। খবর পেয়ে উখিয়া থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করেন। পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি কালে লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছে।

এদিকে নিহতের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন স্বামী উপেল বড়ুয়ার নির্যাতন চালিয়ে কাবেরী কে হত্যা করা হয়েছ। অপরদিকে শ্বশুরপক্ষের লোকজন তা অস্বীকার করে বলেন গলায় ফাঁস লাগিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছে।

পাঠকের মতামত: