ঢাকা,রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

এক ঘন্টা বাজার !

আতিকুর রহমান মানিক ::  এক ঘন্টার বাজার। ব্যাতিক্রমী নামের এ বাজারের সিষ্টেমও ব্যতিক্রমী। কারন প্রতিদিন ‘ধলপহর’ অর্থাৎ ভোরবেলায় বসা এই বাজারে ক্রেতা সমাগম ও বেচাকেনার ডিউরেশন মাত্র এক ঘন্টা। সূর্য উঠার খানিকটা আগেই বাজারের বিক্রেতারা পসরা সাজিয়ে বসেন আর ক্রেতারাও একই সময়ে আসেন সওদাপাতি সারতে। তবে সবকিছুর ব্যাপ্তি একঘন্টা বা এর চেয়ে কিছু বেশী। তাই প্রতিদিন কাকডাকা ভোরেই রকমারী পন্যের পসরা জমে উঠে এই একঘন্টার বাজারে।

কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নের টেকপাড়া গ্রাম। পাশেই পোকখালী ইউনিয়নের সীমানা। দুই ইউনিয়নের সঙ্গমস্হলে ঈদগাঁও টু গোমাতলী সড়কের টেকপাড়া পয়েন্টে “ডান্ডি বাজার” নামে মফঃস্বল বাজার অবস্হিত। ডান্ডি বাজারে স্হায়ী অবকাঠামোর মুদির দোকান ও চায়ের দোকানপাট আছে ডজনখানেক। এর পাশেই রাস্তার দুই ধারে প্রতিদিন ফজর নামাজের পরপরেই কাকডাকা ভোরে জমে উঠে ব্যতিক্রমী এই একঘন্টার বাজারের বিকিকিনি।

বিভিন্ন প্রজাতির তরতাজা সামুদ্রিক মাছের জন্য বাজারটি বিখ্যাত। কারন অদুরেই সব বাগদা চিংড়ি চাষের ঘের। এসব প্রজেক্টে চিংড়ির পাশাপাশি সাথী ফসল হিসাবে উৎপন্ন হয় নোনা পানির আরো রকমারী প্রজাতির মাছ।
সেখান থেকে আহরিত কোরাল, বাঠা, দাতিনা, নোনা পানির ট্যাংরা, বিছাতারা, ধুম, কেঁচকি, বাইলা ও ঘ ঘ মাছ এবং লইল্যা, চাগা ও বাগদা চিংড়িসহ আরো হরেক প্রজাতির মাছ পাওয়া যায় ঘন্টা বাজারে । ভোররাতে ঘের থেকে আহরন করার কয়েকঘন্টার মধ্যেই বাজারে তোলা হয় তরতাজা এসব মাছ।
মাছ ব্যবসায়ী কলিমুল্লাহ বলেন, সমুদ্রে জো (ভরাকাটাল) উঠলে বাজারে যোগ হয় নতুন মাত্রা। তখন পাঁচ মিশালী সামুদ্রিক মাছও উঠে এ বাজারে। স্হানীয় ভাষায় ‘জাইল্যা মাছ’ নামে পরিচিত ছোট আকারের পাঁচ মিশালী প্রজাতির মাছ, কেঁচকি মাছ ও দুর্লভ ‘বিনি ইছা’ নামক সামুদ্রিক চিংড়ি পাওয়া যায় এসময়।
তাই সবমিলিয়ে তরতাজা ও সুস্বাদু বিভিন্ন প্রজাতির মাছ তুলনা মূলক কমদামে পাওয়া যায় বলেই ক্রেতারা ছুটে আসেন এখানে।

মাছ ছাড়াও এখানে দেশী মূরগী, বিনি চাউল, ঘরোয়াভাবে উৎপাদিত ফ্রেশ শাক-সবজি ও তরি তরকারীর পসরা সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। আর এভাবে প্রতিদিন কাকডাকা ভোরেই জমে উঠে এন্তার বিকিকিনি। তবে শেষ কথা কিন্তু একটাই, ওই একঘন্টা। দেরী হলে ক্রেতা নেই বিক্রেতাও নেই !
সুতরাং একঘন্টা বাজার নামটা যথার্থই বলতে হবে।

স্হানীয় ক্রেতারা ছাড়াও দুরের এলাকা থেকেও বাইক হাঁকিয়ে ছুটে আসেন অনেকে। থলেভর্তি তাজা মাছ সস্তায় কিনে নিয়ে যান তারা।

প্রতিদিন ভোরে জমে উঠা এই বাজার এলাকার বাসিন্দা বিশিষ্ট লেখক, কলামিস্ট ও চিকিৎসক ডাক্তার সৈয়দ আবদুর রহমান। তিনি বলেন, প্রতিদিন ভোরে ঘুম থেকে উঠা মানব স্বাস্হ্যের জন্য উপকারী। পক্ষান্তরে দেরীতে ঘুম থেকে উঠা আলস্যেরই নামান্তর। তাই যারা ভোরে উঠবেন, তারাই তরতাজা মাছ-তরকারীর বাজার সওদা করতে পারবেন এখান থেকে। দেরীতে ঘুম থেকে উঠেছেন তো হেরে গেছেন। এটাই ব্যতিক্রমী একঘন্টা বাজারের মূলমন্ত্র বলে জানালেন স্হানীয়রা।
কক্সবাজার চট্টগ্রাম মহাসড়কের ঈদগাঁও বাসষ্টেশন থেকে ১৫ টাকা টমটম – সিএনজি টেক্সী ভাড়ায় যাওয়া যায় এই বাজারে।

পাঠকের মতামত: