Home » কক্সবাজার » দুদকের সাক্ষীকে মারধরের অভিযোগে গ্রেপ্তার ছোটন চেয়ারম্যান সহ ৫ জন কারাগারে

দুদকের সাক্ষীকে মারধরের অভিযোগে গ্রেপ্তার ছোটন চেয়ারম্যান সহ ৫ জন কারাগারে

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী ::  দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর তদন্তে সাক্ষীকে মারধরের অভিযোগে কুতুবদিয়া উপজেলার বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ.ন.ম শহীদ উদ্দিন চৌধুরী ছোটন সহ গ্রেপ্তার হওয়া ৫ জনকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বিষয়টি কক্সবাজারের কোর্ট ইনস্পেকটর মাহবুবুর রহমান সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রোববার ১ ডিসেম্বর বিকেলে কক্সবাজার সদর মডেল থানা থেকে ৪ জনকে কোর্ট পুলিশের মাধ্যমে আদালতে প্রেরণ করা হয়। প্রেরিত ৪ জনকে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চার্চ ওয়ারেন্ট মূলে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতে রোববার সন্ধ্যায় তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। কুতুবদিয়া থেকে আটককৃত একজনকে কুতুবদিয়া চৌকি আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদেশে একইভাবে তাকেও কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিদারুল ফেরদৌস।

কারাগারে প্রেরিত ৫ জনের মধ্যে কক্সবাজার সদর মডেল থানার পুলিশ শহরের লালদীঘির পাড় থেকে গ্রেপ্তার করেছে ৪ জন, কুতুবদিয়া থানা পুলিশ কুতুবদিয়া থেকে গ্রেপ্তার করেছে ১ জনকে গ্রেপ্তার করেছিলো।

চট্টগ্রামের দুদকের উপ-সহকারি পরিচালক জাফর সাদেক শিবলী এ ঘটনার সত্যতা সিবিএন-কে জানান, কুতুবদিয়া থানার বর্তমান ওসি দিদারুল ফেরদৌসের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা একটি অভিযোগ দুদক কর্তৃক তদন্তকালে সাক্ষীর ওপর হামলার অভিযোগে কুতুবদিয়া থানায় কুতুবদিয়া উপজেলার কৈয়ারবিলের জনৈক রুহুল আমিন বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামী করে কুতুবদিয়া থানায় শনিবার ৩০ নভেম্বর একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর : ১১/২০১৯। ধারা : ফৌজদারি দন্ডবিধি : ১৪৩/৩০৭/৩২৪/৩৭৯। এই মামলার দুদকের লোকজন পুলিশ সহ গিয়ে এজাহারভূক্ত আসামী কুতুবদিয়া উপজেলার বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ.ন.ম শহীদ উদ্দিন চৌধুরী ছোটন, একই ইউনিয়নের মেম্বার হেলাল উদ্দিন, মেম্বার জিয়াউল হক, মোহাম্মদ ছিদ্দিককে পুলিশ শনিবার রাতে কক্সবাজারে আটক করে। এর আগে উক্ত ঘটনার জড়িত থাকার অভিযোগে বেলাল উদ্দিন নামের আরো এক যুবককে আটক করে কুতুবদিয়া থানা পুলিশ।

চট্টগ্রাম দুদকের উপ-সহকারি পরিচালক শরিফ উদ্দিন সিবিএন-কে বলেন, কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ দিদারুল ফেরদৌস, এসআই জয়নাল আবেদীন, এএসআই সজল দাশ’র বিরুদ্ধে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ, দুর্নীতি, নীরিহ লোকদের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি ও দখলদারের পক্ষ নেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন কুতুবদিয়ার মনোয়ার ইসলাম মুকুল নামের এক ব্যক্তি। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশনকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। ওই নির্দেশের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর উপ-সহকারি পরিচালক শরীফ উদ্দিনের নেতৃত্বে ৪ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল কুতুবদিয়া যান। এসময় তদন্তের এক পর্যায়ে দায়ের করা পিটিশনের সাক্ষীদের কুতুবদিয়া উপজেলা সদরে আসার জন্য অনুরোধ করেন দুদকের প্রতিনিধিদল। এ খবর পেয়ে বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ.ন.ম শহীদ উদ্দিন ছোটনের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল হামলা চালিয়ে সাক্ষীদের বেধড়ক মারধর করে অপহরণের চেষ্টা চালায়। পরে দুদকের হস্তক্ষেপে আহতদের রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এ ঘটনা কুতুবদিয়া থানা কর্তৃপক্ষ অবহিত হয়ে দুদকের নির্দেশে কুতুবদিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ ব্যাপারে মামলা নেয়ার জন্য কুতুবদিয়া থানাকে দুদক প্রতিনিধিদল অনুরোধ জানালে কুতুবদিয়া থানায় মামলা রেকর্ড করে আসামীদের গ্রেপ্তার করেন বলে দুদক কর্মকর্তারা সিবিএন-কে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চট্টগ্রাম ৮ আসনে মোছলেম উদ্দিনের মনোনয়নপত্র জমা

It's only fair to share...000আবুল কালাম, চট্টগ্রাম :: চট্টগ্রাম ৮ আসেনর উপ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ...

error: Content is protected !!