ঢাকা,রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

উখিয়ায় এনজিওকর্মী হত্যাকান্ডে জড়িত আলাউদ্দিন আটক

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া :: উখিয়ায় এনজিও কর্মী খুনের ঘটনায় একমাত্র পলাতক আসামী আলা উদ্দিন (২৫) কে উখিয়া থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আটক করেছে। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনাইছড়িতে তার খালার বাড়ি থেকে তাকে একটি মোটর সাইকেল সহ আটক করা হয়েছে বলে উখিয়া থানা সূত্রে জানা যায়।
বৃহস্পতিবারে (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে উখিয়ার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের পশ্চিম মরিচ্যা গুরাইয়ারদ্বীপ সড়কের চৌরাস্তার মাথায় এনজিও কর্মী মাজহারুল ইসলাম নামের ব্যক্তি কে খুন করে পালিয়ে যায় আলা উদ্দিন। আলা উদ্দিন উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের মোঃ শফির বিল গ্রামের জাফর আলমের ছেলে বলে জানিয়েছেন উখিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মোঃ নুরুল ইসলাম মজুমদার।
গুরুতর আহত অবস্থায় সে উদ্ধার কারীদের জানিয়েছিলেন উখিয়া উপজেলার ইনানী এলাকার আলা উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি তাকে ছুরিকাঘাত করেছে।
স্থানীয় লোকজন আলাউদ্দিনের বাপের নাম কি জিজ্ঞাসা করলে ততক্ষণে সে মাটিতে ঢলে পড়ে যায়। আর কথা বলতে পারেনি।স্থানীয় ইউপি সদস্য মনজুর আলম জানান, স্থানীয় লোকজন ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত যুবক পড়ে থাকতে দেখে আমাকে খবর দিলে আমরা দ্রুত তাকে উক্ত স্থান থেকে উদ্ধার করে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
উখিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ওসি নুরুল ইসলাম মজুমদার জানান, নিহত মাজহারুল ইসলাম দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণ নগর গ্রামের আবদুস সাত্তারের ছেলে। নিহত ব্যক্তি ২০১২ সাল থেকে এনজিও ব্রাকে হিউম্যান রাইটস এন্ড লিগ্যাল এইড এ চাকরি করছিল। কিছুদিন পূর্বে সে অফিসের মালামাল বুঝিয়ে না দেয়ার ব্রাক তার বিরুদ্ধে মামলা করে।
নিহত মাজহারুলের সাথে খুনী আলা উদ্দিনের মধ্য সম্পর্ক গড়ে উঠে। তবে কি কারণে এ খুনের ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত করা হচ্ছে। নিহত মাজহারুলের লাশ কক্সবাজার মর্গে রয়েছে। আত্মীয় স্বজনরা আসলে লাশ বুঝিয়ে দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

পাঠকের মতামত: