ঢাকা,রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১

মহেশখালীতে ত্রানের প্যাকেটে পঁচা চাল! 

মনির আহমদ, চকরিয়া অফিস ::  মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ীতে ত্রানের প্যাকেটে পঁচা চাল দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। মহেশখালীর খাদ্য গুদাম কর্তৃক বিতরণ করা ত্রাণের এসব প্যাকেটের দূর্গন্ধযুক্ত হওয়ার বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। মাতারবাড়ীতে ১৭ জুলাই ৩ শত পরিবারের মাঝে বিতরণ করা এসব
ত্রাণ থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এসব ত্রাণের প্যাকেট থেকে বেরিয়ে আসা দুর্গন্ধের কারনে অনেকে তা নেয়ার পর ফেলে দিয়েছে।
 সূত্র জানায়, বন্য দূর্গত ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় সরকার
চাউল, আলু ও তেল সহ ১১ প্রকারের খাদ্য সামগ্রী পাঠালে স্ব স্ব ইউপি চেয়ারম্যানের পক্ষে এলাকায় তা বিতরণ করা হয়। অন্যান্য এলাকার মত মহেশখালী উপজেলা  প্রশাসন কর্তৃক ইতিমধ্যে উক্ত ত্রাণ স্ব-স্ব ইউনিয়নের মাধ্যমে বিতরণ সম্পন্ন করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৭ জুলাই সকালে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করতে গিয়ে প্যাকেট থেকে দুর্গন্ধ বেরিয়ে আসায় অনেকে তা নিতে রাজি হয়নি। পরে নিলে আবার ফেলে দিয়েছে বলে সূত্র জানায়। এ সময়  উপস্থিত চৌকিদার জহর লাল সহ অন্যান্যদের কাছ থেকে জানতে চাইলে তারা ১৬ জুলাই বিকেলে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে তা বুঝে নিয়ে গাড়িতে তোলার সময় ও গন্ধ বেরিয়ে আসছিল। তা পরদিন ১৭ জুলাই সকালে বিতরণ করতে গিয়ে দুর্গন্ধ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।
চাউলে দুর্গন্ধের কারন জানতে চাইলে মাতারবাড়ীর ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন, “উপজেলা প্রশাসন প্যাকেট করা ত্রাণ দিয়েছে। আমরা ট্রাকে করে পাঠিয়ে দিয়েছি এলাকায়। পরিষদের মেম্বার-চৌকিদাররা তা বন্টন করে দিয়েছে। প্যাকেটের ভিতরে চাল ভাল কিংবা খারাপ আমাদের খুলে দেখার ও অধিকার নাই তাই দেখি নাই। সরকার যা দিয়েছে আমার পরিষদ বিতরন করেছে। এখানে আমার হাত নেই। তা ছাড়া ঐ দিন ত্রান পাঠিয়ে দিয়ে উপজেলার একটা মিটিং এ ছিলাম।”ট্রাকে করে পাঠিয়ে দিয়েছি এলাকায়। পরিষদের মেম্বার-চৌকিদাররা বন্টন করে দিয়েছে।”

পাঠকের মতামত: