Home » জাতীয় » বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণ নিলো বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণ নিলো বাংলাদেশ

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

অনলাইন ডেস্ক ::

উৎক্ষেপণের ছয় মাসের মাথায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণ সম্পূর্ণভাবে বুঝে নিলো বাংলাদেশ।

শুক্রবার রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউয়ে বাংলাদেশ কমিউনেকশন স্যাটেলাইট কম্পানি লিমিটিড (বিসিএসসিএল) কার্যালয়ে ‘ট্রান্সফার অফ টাইটেল’ হস্তান্তরের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রথম বাণিজ্যিক স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ আনুষ্ঠানিকভাবে বুঝিয়ে দেয় স্যাটেলাইট সিস্টেম নির্মাণকারী ফরাসি কম্পানি তালিস এলিনিয়া স্পেস।

এ কম্পানির প্রোগ্রাম ম্যানেজার জিল অবাদিয়া বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হকের কাছে ‘ট্রান্সফার অফ টাইটেল’ হস্তান্তর করেন। পরে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তা হস্তান্তর করেন বিসিএসসিএলের চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদের কাছে।

এই স্যাটেলাইট সিস্টেমের নকশা তৈরির জন্য ২০১২ সালের মার্চে মূল পরামর্শকের দায়িত্ব পায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘স্পেস পার্টনারশিপ ইন্টারন্যাশনাল’। এরপর স্যাটেলাইট সিস্টেম কিনতে ফ্রান্সের তালিস এলিনিয়ার সঙ্গে এক হাজার ৯৫১ কোটি ৭৫ লাখ ৩৪ হাজার টাকার চুক্তি করে বিটিআরসি।

গত ১২ মে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে সফলভাবে উৎক্ষেপণ করা হয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ‘ট্রান্সফার অফ টাইটেল’ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বলেন, ‘আজকের দিন দেশের মানুষের জন্য স্মরণীয় দিন। তলাহীন ঝুড়ি হিসেবে যে দেশ আখ্যায়িত হয়েছিল সে দেশ এখন স্যাটেলাইটের মালিক, এটি সবার জন্য গর্ব করার বিষয়।’

মন্ত্রী বলেন, এ স্যাটেলাইট কতদিনে লাভজনক হবে বা কতোটা সেবা পাওয়া যাবে তার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল এটি বাংলাদেশের একটি অর্জন, একটি গর্বের বিষয়।

বিসিএসসিএল চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ‘আজ থেকে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের প্রকৃত মালিক হল। ২০০৯ সাল থেকে দীর্ঘ এক যাত্রার শেষ হল এর মাধ্যমে। এ প্রকল্পে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রেরণা ও দিক নির্দেশনা পেয়েছি প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টার (সজীব ওয়াজেদ জয়) কাছ থেকে।’

তিনি জানান, স্যাটেলাইটের ৪০টি ট্রান্সপন্ডারের মধ্যে ২০টি দেশের মধ্যে ব্যবহার করে বাকি ২০টি ভাড়া দেওয়া হবে বিদেশে। আমাদের যে টাকা খরচ হয়েছে, খুব কম সময়ে তা উঠে আসবে, আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে স্টক এক্সচেঞ্জে যাব বলে আশা করি।

অন্যদের মধ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বাংলাদেশে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত ম্যারি আনিক রোর্ডিনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রাফিয়া আলম জেবা : অদম্য এক পিইসি পরীক্ষার্থী লিখছে পা দিয়ে

It's only fair to share...32900কক্সবাজার প্রতিনিধি ::   কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাহ ইউনিয়নের ভোমরিয়া ঘোনা সরকারি ...

error: Content is protected !!