Home » জাতীয় » ‘সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে সরকারি ২১ সংস্থা’

‘সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে সরকারি ২১ সংস্থা’

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

 অনলাইন ডেস্ক :::

সাইবার নিরাপত্তার বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) সহায়তার আশ্বাস দিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সাইবার নিরাপত্তার ঝুঁকিতে থাকা সরকারি ২১টি সংস্থার মধ্যে এনবিআর অন্যতম। এজন্য এনবিআরের সাইবার নিরাপত্তার বিষয়টি সরকার অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।
image_175929_0

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় রাজস্ব ভবনের সম্মেলনকক্ষে ‘ডিজিটাল এনবিআর এ সাইবার নিরাপত্তা’ বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান মাফরুহা সুলতানা, হাইটেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, আইটি বিশেষজ্ঞ ও বেসিস সভাপতি মোস্তফা জব্বার, সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ ফরহাদ হোসেন ও ন্যাশনাল ডেটা সেন্টারের পরিচালক তারেক বরকত উল্লাহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পলক বলেন, ‘নিবন্ধিত করদাতার সংখ্যা ২৭ লাখ ছাড়িয়েছে। দিনদিন এ সংখ্যা বাড়ছে। এসব করদাতাদের তথ্য নিরাপত্তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এনবিআর রাজস্ব আদায়ের জন্য যেভাবে ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে সেভাবে সাইবার নিরাপত্তা হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুতি নিতে হবে। এনবিআর দেশের ২১টি ক্রিটিক্যাল ইনফ্রাস্ট্রাকচারের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ। সাইবার নিরাপত্তার ক্ষেত্রে এটি সরকারের অগ্রাধিকার। তাই আমরা পার্টনারশীপ করে কাজ করছি।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের ক্ষেত্রে এনবিআর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সাইবার হামলার পর সময় এসেছে সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে ভাববার। তথ্য নিরাপত্তার বিষয়কে সরকার এখন বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ৮১ বিলিয়ন ডলার চুরির মাধ্যমে যে সাইবার ক্রাইম হয়েছে,তা আমাদের প্রচলিত ধারণার বাইরে। এটি ছিল ব্যতিক্রমধর্মী সাইবার অ্যাটাক। এ ধরণের অপরাধ রোধে সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বলে তিনি জানান।

দেশের জনগণের মধ্যে কর সচেতনতা তৈরির ক্ষেত্রে এনবিআরের সাফল্যের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী ‘উন্নয়নের অক্সিজেন রাজস্ব’ এ স্লোগানকে খুবই পছন্দ করেছেন। প্রযুক্তি সহায়তায় কিভাবে উন্নয়নের অক্সিজেন বাড়ানো যায় সে দিকে গুরুত্ব দিতে হবে। এনবিআর রাজস্ব আহরণকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে দ্রুত ডিজিটাইলাইজেশন হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ডিজিটাল এনবিআর গঠন ও সাইবার নিরাপত্তায় এনবিআরকে সহায়তা দেয়ায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অংশ হিসেবে ডিজিটাল এনবিআর গঠনের প্রয়াস চালানো হচ্ছে। এক্ষেত্রে আমরা বহুদূর এগিয়েছি। ডিজিটাল এনবিআর গঠনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, বেসিসসহ সব সংস্থার সহায়তা পাচ্ছি। এসব প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পার্টনারশিপ গড়ে তোলা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ পার্টনারশিপ আরো সুদৃঢ় হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সেমিনারে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন তুলে ধরেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ডিজিটাল এনবিআরের অগ্রগতি তুলে ধরে পৃথক দুইটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংস্থার সদস্য রেজাউল করিম ও কালীপদ হালদার।

অনুষ্ঠানে সদ্যসমাপ্ত ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী ১০টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের হাতে ভ্যাট সম্মাননা সনদ ও পুরস্কার তুলে দেন জুনাইদ আহমেদ পলক। -বাসস।

নতুন বার্তা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

উত্তপ্ত চট্টগ্রাম কলেজ, সক্রিয় বিবদমান তিনটি গ্রুপ

It's only fair to share...000তাজুল ইসলাম পলাশ, চট্টগ্রাম : ২০১৫ সালের ১৬ ডিসেম্বর শিবিরের ঘাঁটি ...