ঢাকা,মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

কওমী মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের তাকমীল (মাস্টার্স) পরীক্ষায় ৬ষ্ঠ রামুর নুরুল আবছার

সোয়েব সাঈদ, রামু
সরকার স্বীকৃত সর্বোচ্চ সম্মিলিত কওমী মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড ‘আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া’ কর্তৃক দাওরায়ে হাদিস তথা তাকমীল (মাস্টার্স) পরীক্ষায় সারা বাংলাদেশে ৬ষ্ঠ স্থান লাভ করেছে রামুর সন্তান, মেধাবী ছাত্র নুরুল আবছার বিন মতিউর রহমান। একই পরীক্ষায় সে পুরো চট্টগ্রাম বিভাগ ও আল-জামিয়া আল-আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীতে প্রথম স্থান অধিকার করে। মাহে রমজানের আগে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় সারা দেশের এক লাখ ৭১ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬ষ্ঠ স্থান লাভ করে অনন্য প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে কওমী অঙ্গনের মেধাবী ছাত্র নুরুল আবছার রামুবাসী তথা পুরো কক্সবাজারবাসীর জন্য বয়ে এনেছে বিরল সম্মান। এই ফলাফলের জন্য মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে তার মা-বাবা ও শিক্ষকদের কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে।
নুরুল আবছার হাটহাজারী বড় মাদ্রাসায় দাওরায়ে হাদিসের ক্লাস করে সেখান থেকে দাওরায়ে হাদিস পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছে। ১০০০ নং এর পরীক্ষায় সে ৯২৯ নং পেয়ে ৬ষ্ঠ স্থান লাভ করে। ১০টি বিষয়ের সবটিতেই আবছার উত্তর লিখেছে আরবিতে।
এর আগে কক্সবাজারের খুরুস্কুল অদুদিয়া তালিমুদ্দিন মাদ্রাসা থেকে সে কওমী মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড ‘আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস’ এর ফাইনাল পরীক্ষায় কামেলাইন বা ফাজিল ক্লাসে ৬০০ নাম্বারের মধ্যে ৫৯০ নাম্বার পেয়ে সমগ্র বাংলাদেশে তৃতীয় স্থান অধিকার করেছিল। তারও আগে জামাতে ছাহারুমে বা আলিম ক্লাসেও একই মাদ্রাসা থেকে সে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে গোটা বাংলাদেশে প্রথম স্থান অর্জন করেছিল। আর জামাতে হাস্তুমে সে ধাউনখালী খলিলিয়া ছিদ্দিকিয়া ফয়জুল উলুম মাদ্রাসা থেকে আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস’ এর কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় মারকায পেয়ে মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছিল। বলতে গেলে নূরানী প্রথম শ্রেণি থেকে শুরু করে দাওরায়ে হাদীস (মাস্টার্স) পর্যন্ত প্রতিটি ক্লাসে সে প্রথম স্থানই ধরে রাখার গৌরব অর্জন করেছে।
মেধাবী নুরুল আবছার কক্সবাজার জেলার রামু খুনিয়াপালং ইউনিয়নের দারিয়ার দীঘির কালুর দোকানে তাদের বাড়ি। তার পিতা মতিউর রহমান। পরিবারে নুরুল আবছার ৫ম সন্তান। তার বড় ৪ বোন ও একজন ছোট ভাই রয়েছে।
গ্রামীণ জনপদের সাধারণ পরিবার থেকে উঠে আসা নবীন আলিম ও মেধাবী শিক্ষার্থী নুরুল আবছার আল্লাহর ক্রমান্বয়ে মিশরের আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইলমে তাফসির, ইলমে হাদিস ও আরবী ভাষার ওপর উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করে ইসলাম ও দেশের সেবায় ভূমিকা রাখতে চায়। অতি সাধারণ পরিবারের সন্তান, দেশসেরা এই মেধাবী নুরুল আবছারের মেধাকে কাজে লাগিয়ে তার স্বপ্ন পুরণ ও দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহল এবং দেশ-বিদেশের দ্বীনি শিক্ষাব্রতী সুহৃদ, শুভানুধ্যায়ীদের এগিয়ে আসা প্রয়োজন।

 

পাঠকের মতামত: