ঢাকা,মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

কুতুবদিয়ায় সাড়ে ৮ কি.মি বেড়ীবাঁধ ঝুকিপূর্ণ

আব্বাস সিদ্দিকী, কুতুবদিয়া ::
কুতুবদিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সাড়ে ৮ কিলোমিটার বেড়ীবাঁধ ঝুকির মধ্যে রয়েছে। এ সাড়ে ৮ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে উপজেলার উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের এক কিলোমিটার, দক্ষিণ ধূরুং ইউনিয়নের আধা কি.মি, লেমশীখালী ইউনিয়নের ১ কি.মি, কৈয়ারবিল ইউনিয়নের আধা কি.মি, বড়ঘোপ ইউনিয়নের দুই কিলোমিটার এবং আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে সাড়ে ৩ কিলোমিটার।

এছাড়াও সাড়ে ১৫ কিলোমিটার বেড়ীবাঁধ সংস্করণ হয়নি। এসব এলাকায় সাগরের পানি বৃদ্ধির সঙ্গে বাতাসের তীব্রতা বাড়লে যেকোনো সময় বড় ধারণের ক্ষতি হতে পারে। এ কারণে উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ চরম উৎকন্ঠের মধ্যে রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আলী আকবর ডেইল ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নরুচ্ছফা বিকম জানান, আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের পশ্চিম পাশে কাহার পাড়া থেকে বায়ু বিদ্যুৎ এলাকা পর্যন্ত এবং আনিচর ডেইলসহ মোট সাড়ে ৩ কি.মি বেড়ীবাঁধের অবস্থা খুবই নাজুক। এ ইউনিয়নে কয়েক হাজার মানুষ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান জালাল আহমেদ জানান, তার ইউনিয়নে বেড়ীবাঁধ আধা কিলোমিটার মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এতে প্রায় ৫০০ পরিবার ক্ষতির মুখে রয়েছে।দ্রুত সময়ে টেকসই বেড়ীবাঁধ নির্মাণের মাধ্যমে জোয়ারের পানি ঠেকানোর ব্যবস্থা করা না হলে এলাকার ৬ হাজার মানুষ ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।

এব্যাপারে উপজেলা পাউবো উপ-সহকারী প্রকৌশলী এলটন চাকমা জানান, কুতুবদিয়াকে রক্ষার জন্য পাউবো ৭১ পোল্ডারের আওতায় ৪০ কি.মি বেড়ীবাঁধ রয়েছে। এর মধ্যে ১৫.৯০ কি.মি বেড়ীবাঁধ নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। অসম্পূর্ণ কাজ রয়েছে সাড়ে ১৫ কি.মি। এছাড়াও সাড়ে ৮ কি.মি মারাত্মক ঝুকিপূর্ণ। তবে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ঝুকিপূর্ণ বেড়ীবাঁধ মেরামত করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

 

পাঠকের মতামত: