ঢাকা,শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

চকরিয়ায় অগ্নিকাণ্ড ঘুমন্ত শিশু দগ্ধ হয়ে মৃত্যু

এম জিয়াবুল হক , চকরিয়া ::
কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভা এলাকায় গভীর রাতে একটি বসতবাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের সময় ঘুমন্ত অবস্থায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে সাত বছরের শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের হালকাকারা মৌলভীরচরে এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া শিশুর নাম ওসমা মনি (৭) হালকাকারা এলাকার মৌলভীরচরের বাসিন্দা প্রবাসী মোহাম্মদ ওসমানের মেয়ে।

স্থানীয় লোকজন জানান, চকরিয়া পৌরসভার মৌলভীরচর এলাকায় শনিবার রাতে মো. বাহাদুর মিস্ত্রির বসতঘরে দক্ষিণ কোণায় অবস্থিত চুলা থেকে আগুন লাগে। এই ঘরটিতে বাহাদুর মিস্ত্রি, তার ভাই মোহাম্মদ ওসমান ও মোহাম্মদ মিজান স্ত্রী সন্তান নিয়ে আলাদা থাকতেন। আগুন লাগার ১০ মিনিটের মধ্যে বসতঘরের সবদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে পুড়ে ওসমা মনি মারা যায়।

শিশু ওসমা মনির মা শাহিনা আকতার বলেন, তার দুই ছেলে, এক মেয়ে। ১০ বছরের বড় ছেলে ও ২২ মাসের ছোট ছেলে তার সঙ্গে ঘুমিয়েছিল। আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে তিনি দুই সন্তান নিয়ে বেরিয়ে পড়েন। ওসমা মনি তার চাচির সঙ্গে ঘুমন্ত অবস্থায় ছিল।

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে রাতে ঘটনাস্থলে ছুটে যান চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) তফিকুল আলম ও চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, দেড়ঘণ্টা চেষ্টার পর চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এই আগুনে ওই বাড়ি ও শিশু ওসামা মনি মারা গেছে। শিশুটি যেহেতু আরেকঘরে পুড়ে মারা গেছে তাই ওই শিশুর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ দিকে, ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল রোববার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলম, চকরিয়া উৃপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদি ও চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী। এসময় তারাও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সদস্যদের হাতে সহায়তা হিসেবে নগদ অর্থ তুলে দেন।

পাঠকের মতামত: