ঢাকা,শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

চকরিয়ার বমুতে স্কুলছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে বখাটের মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::
বান্দরবান পার্বত্য জেলার লামা সদরে কোচিংয়ে প্রাইভেট পড়ে বাড়িতে ফেরার পথে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে মেরে গুরুতর জখম করেছে জাহেদুল ইসলাম (১৮) নামে এক বখাটে।

আজ সোমবার (১৫ আগস্ট) দুপুর ১২টায় চকরিয়া উপজেলার বমু বিলছড়ি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড পূর্ব পাড়ার রহিমের দোকানের সামনে এই ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

বখাটের হামলায় গুরুতর আহত শিক্ষার্থীকে দুপুর ২টায় লামা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিকেলে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আহত স্কুলছাত্রী লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী । বখাটে জাহেদুল ইসলাম একই গ্রামের মো. আলমগীর ও তাহেরা বেগমের ছেলে।

আহত স্কুলছাত্রীর মা বলেন, জাহেদুল ও তার পরিবারের লোকজন আজ সকাল ১০টায় আমার বাড়ির একটি সুপারী গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার সময় তাদের সাথে বাকবিতণ্ডা হয়। সে ঘটনার জের ধরে দুপুর ১২টায় আমার মেয়ে লামা বাজার থেকে কোচিং ক্লাস শেষ করে একা বাড়িতে আসার সময় পূর্বপাড়া দোকানের সামনে স্থানীয় অনেক লোকজনের উপস্থিতিতে বখাটে জাহেদুল ইসলাম আমার মেয়েকে প্রকাশ্যে মারধর করেছে।

আহত শিক্ষার্থী বলেন, লোকজনের সামনে প্রকাশ্যে জাহেদুল আমাকে ঘাড়, চুল ধরে কপাল ও মুখ গাছের সাথে অনবরত আঘাত করে। এসময় আমার নাকের হাড় ভেঙ্গে যায়, কপাল ফুলে যায় এবং দাঁত হতে রক্ত বের হয়। তারপর চুল ধরে মারধর করে। দূর থেকে তার মা-বোন চেয়ে থাকে, আরও মারতে উৎসাহ দেয়। কেউ আমাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেনি।

এই বিষয়ে বমু বিলছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল কাদের বলেন, আহত স্কুল ছাত্রীকে নিয়ে তারা আমার কাছে আসলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে বলি। চিকিৎসা খরচের জন্য দুই হাজার টাকাও দিতে বলেছি। পরে চিকিৎসা শেষে শিক্ষার্থী ঘরে ফিরলে বিচার করবে আশার বাণী শোনায়।

পাঠকের মতামত: