ঢাকা,শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২

চেয়ারম্যান হলেন প্রয়াত নোবেলের স্ত্রী ফারহানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া  :: কক্সবাজারের চকরিয়ায় ২৮ ডিসেম্বর, রোববার অনুষ্ঠিত ১০ ইউনিয়নের মধ্যে দুটি ইউনিয়ন পূর্ব বড় ভেওলা ও কৈয়ারবিল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন দুজন নারী প্রার্থী। এদের মধ্যে পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নে ফারহানা আফরিন মুন্না বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। তবে কৈয়ারবিলের নৌকা প্রার্থী জন্নাতুল বকেয়া রেখা জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার মতো ভোট পেয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলাজুড়ে চলছে আলোচনা।
কয়েক মাস আগেও ফারহানা আফরিন মুন্না সাংসারিক কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। তার স্বামী চট্টগ্রাম ওমরগণি এমইএস কলেজ সংসদের নেতা ও তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা নাছির উদ্দিন নোবেল পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নে এবার চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন। গত নির্বাচনে তিনি ভোটে দাঁড়ালেও হেরে যান বিএনপি প্রার্থীর কাছে। নোবেলকে দিনে-দুপুরে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এই হত্যাকাণ্ডের পর সাধারণ মানুষের মাঝে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।
দুই সন্তানকে নিয়ে মুন্না চোখে-মুখে অন্ধকার দেখছিলেন। প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত বিষয়টি গড়ালে এবারের নির্বাচনে প্রয়াত নোবেলের স্ত্রী ফারহানা আফরিন মুন্নাকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে দলের মনোনয়ন দেয়া হয়।

চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম জানান, দুই এতিম সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে দলের সকল নেতাকর্মী ও সচেতন জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে প্রয়াত নোবেলের স্ত্রী ফারহানা আফরিন মুন্নার জন্য কাজ করেছেন। এতে তার বিজয় এসেছে।
সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রার্থী হিসেবে প্রয়াত নাছির উদ্দিন নোবেলের স্ত্রী গৃহবধূ ফারহানা আফরিন মুন্নাকে চেয়ারম্যান হিসেবে জিতিয়ে আনার লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের কঠোরভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তাক লাগানো বিজয় হয়েছে মুন্নার। এই বিজয় সন্ত্রাসীদের সমুচিত জবাব দেওয়ার বিজয়।

পাঠকের মতামত:

 
error: Content is protected !!