Home » কক্সবাজার » পেকুয়ায় নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে যাত্রী ছাউনি

পেকুয়ায় নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে যাত্রী ছাউনি

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

পেকুয়া প্রতিনিধি ::  কক্সবাজারের পেকুয়ায় সুষ্ঠু তদারকি ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে করিমদাদ মিয়া ঘাটের একমাত্র যাত্রী ছাউনি। এই সুযোগে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল দ্বারা ইট খুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উজানটিয়া ইউনিয়নের করিমদাদ মিয়ার ঘাটে অবস্থিত এ যাত্রী ছাউনিটির দুই ভিত্তি স্তম্ভ ভাঙনের কারণে ইতোমধ্যে নদীগর্ভে চলে গেছে। মূল কাঠামো কোনরকম নদীর তীর ঘেষে দাঁড়িয়ে আছে। যা যেকোনো মূহুর্তে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ১৯৮৭ সালে জেলা পরিষদের তত্ত¡াবধানে করিমদাদ মিয়া ঘাট সংলগ্ন এ যাত্রী ছাউনিটি স্থাপিত হয়। পেকুয়া উপজেলার সাথে পাশ্ববর্তী উপক‚লীয় এলাকা বদরখালী, কুতুবদিয়া ও মহেশখালী যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম করিমদাদ মিয়া ঘাট। এই নৌপথে প্রতিদিন কয়েক শতাধিক মানুষ চলাচল করার কারনে এ যাত্রী ছাউনির উপযোগিতা অত্যধিক। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে অযত্ন অবহেলার ফলে যাত্রী ছাউনিটি নদী গর্ভে বিলীন হবার উপক্রম হয়েছে।

স্থানীয় রাজনীতিবিদ রেজাউল করিম চৌধুরী মিন্টু বলেন, যাত্রী ছাউনিটি নদী পারাপার করা যাত্রীদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নৌকার জন্য অপেক্ষারত মানুষ সেখানে বসে সময় কাটায়। এটি বিলীন হয়ে গেলে যাত্রীদের দুর্ভোগে পড়তে হবে।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ভেঙ্গে পড়া যাত্রী ছাউনিটি থেকে ফেরাসিঙা পাড়ার বাসিন্দা মো. মনু মিয়া প্রভাব খাটিয়ে লোহা ও ইট খুলে নিচ্ছে।

অভিযোগের বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এম শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘জেলা পরিষদ কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত এ যাত্রী ছাউনি সরকারি সম্পত্তি। এই স্থাপনা কেউ কুক্ষিগত করতে চাওয়াটা হবে অপরাধের নামান্তর।’

অভিযোগের বিষয়টি থানা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানান ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইদলাম।

পেকুয়া উপজেলা প্রকৌশলী জাহেদুল আলম বলেন, এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বিলীন হওয়ার বিষয়ে আমরা অবগত ছিলাম না। শীঘ্রই একটি প্রতিনিধি দল পরিদর্শনে পাঠানো হবে। ইট খুলে নেওয়ার অভিযোগের বিষয়টি তদন্তের আওতাভুক্ত করা হবে বলে জানান প্রকৌশলী জাহেদুল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ায় শাহ আজমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা দখলের অভিযোগ, উত্তেজনা

It's only fair to share...000 নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পুর্ব ...

চট্টগ্রামে বস্তিতে আগুন, শিশুসহ ২ জনের মৃত্যু

It's only fair to share...000 চট্রগ্রাম প্রতিনিধি :: চট্টগ্রাম মহানগরীর এ কে খান মোড় এলাকার ...