ঢাকা,বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

কৈয়ারবিল, কাকারা ও লক্ষ্যারচরে বিশ্বখাদ্য কর্মসূচির সহায়তা সামগ্রী বিতরণ, চকরিয়ায় পাবে সাড়ে ১৬ হাজার পরিবার

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া ::  করোনা সংকটে ক্ষতিগ্রস্থ চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন এবং চকরিয়া পৌরসভা পর্যায়ে জীবিকা হারানো নিন্মআয়ের সাড়ে ১৬ হাজার পরিবারকে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী (ডব্লিউএফপি)’র খাদ্য সহায়তা দেওয়া শুরু হয়েছে। কোভিড- ১৯ সংক্রমন প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ডব্লিউএফপি কর্তৃক স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জন্য স্থানীয় সরকারকে সম্পৃক্ত করে এ কর্মসূচীটি বাস্তবায়ন করছে চকরিয়ার বেসরকারী সংস্থা এসএআরপিভি (সোসাল এ্যাসিস্ট্যান্স এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন ফর দি ফিজিক্যালি ভালনারেবল)।

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে চকরিয়া পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ জাফর আলম বলেছেন, ‘আওয়ামীলীগই একমাত্র দল, যে দলটি যে কোন ধরনের দুর্যোগের সময়ে দেশের মানুষের পাশে ছিলো, আছে এবং থাকবে। ভবিষ্যতেও আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে করোনা ভাইরাসসহ সব ধরনের সংকট মোকাবিলা করে এগিয়ে যাবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার এবং আওয়ামী লীগ যে কোন সংকটে জনগণের পাশে ছিল, তেমনি করোনা ভাইরাস সঙ্কট মোকাবেলার ক্ষেত্রেও জনগণের পাশে থেকে জয়ী হবে।’

ইউনিয়ন পর্যায়ে বিতরণের প্রথমদিনে মঙ্গলবার (৯জুন) সকাল ৯টা থেকে বিকাল পর্যন্ত খুব সুন্দরভাবে সামাজিক দুরত্ব বাজায় রেখে চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচর, কৈয়ারবিল ও কাকারা ইউনিয়নে খাদ্য সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের শুরু হয়। এদিন সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এই তিন ইউনিয়নে ১ হাজার ৮৮৩ উপকারভোগী পরিবারের মাঝে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়। মঙ্গলবার প্রথমে দেওয়া হয়েছে পরিবার প্রতি ৩০ কেজি করে ভাল মানের চাল ও ৫ কেজি হাই এনার্জি বিস্কুট।

সহায়তা বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন, এসএআরপিভি’র আঞ্চলিক পরিচালক কাজী মাকসুদুল আলম মুহিত, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, কাকারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার, কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক আবু মুছা, ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা খোরশেদ আলম মেম্বার, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল করিম সেলিম, কাকারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মাসুদ রেজা চৌধুরী, এসএআরপিভি’র কর্মকর্তা ইয়াসমিন সোলতানা, ইমরান, আকতার কামাল মিরাজ, রুবি ও আবদুল মালেক, সাইকুল ইসলাম প্রমুখ।

এসএআরপিভি’র আঞ্চলিক পরিচালক কাজী মাকসুদুল আলম মুহিত বলেন, ‘এ কর্মসুচীর আওতায় করোনা সংকটে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় নিন্ম আয়ের চকরিয়া উপজেলার সাড়ে ১৬ হাজার পরিবারকে ৩টি ইউনিয়নে বিতরণের মাধ্যমে এ খাদ্য সহায়তা দেওয়া শুরু হল। এ কর্মসূচীর আওতায় এসেছে চকরিয়া উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১৮ ইউনিয়নের ১৬ হাজার ৫শত পরিবার।’

এ কর্মসূচীতে চার মাসে চার কিস্তিতে চকরিয়ার ১৬ হাজার ৫শত পরিবারের প্রতি পরিবার পাবেন ৬০ কেজি ভাল মানের চাল, ৫ কেজি হাই এনার্জি বিস্কুট ও নগদ ৪ হাজার ৫শত টাকা। মঙ্গলবার প্রথমে ৩টি ইউনিয়নে দেওয়া হয়েছে পরিবার প্রতি ৩০ কেজি করে ভাল মানের চাল ও ৫ কেজি হাই এনার্জি বিস্কুট। চকরিয়ায় বিতরণ শেষ হলে একই কর্মসূচী পেকুয়া উপজেলার ৭ ইউনিয়নেও একযোগে শুরু হবে। প্রতিদিন ৩টি ইউনিয়নে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।##

পাঠকের মতামত: