Home » কক্সবাজার » ‘স্থানীয়দের জন্য বরাদ্ধকৃত অর্থ কোথায় খরচ হচ্ছে জানতে চায় কক্সবাজারবাসী’

‘স্থানীয়দের জন্য বরাদ্ধকৃত অর্থ কোথায় খরচ হচ্ছে জানতে চায় কক্সবাজারবাসী’

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

বার্তা পরিবেশক :: হোস্ট কমিউনিটির জন্য বরাদ্ধ করা অর্থ সঠিক ভাবে খরচ হচ্ছেনা। রোহিঙ্গা ক্যাম্প ভিত্তিক এনজিও থেকে স্থানীয় জনগোষ্টির জন্য বরাদ্ধকৃত প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকার বেশির ভাগই অপচয় হচ্ছে আর কিছু সরকারি কর্মকর্তার অফিস ভবন সজ্জিত হচ্ছে এতে চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজারের স্থানীয় মানুষের কোন উপকার হচ্ছেনা। তাই হোস্ট কমিউনিটির জন্য বরাদ্ধ করা টাকার সঠিক হিস্যা দাবী করছি এবং সেটা কোথাই কিভাবে খরচ হচ্ছে সেটাও জনগন দেখতে চায়। আমরা কক্সবাজারবাসীর ব্যান্যারে ২২ জানুয়ারী কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন সমাবেশ থেকে বক্তারা এসব কথা বলেন। এ সময় কক্সবাজারের স্থানীয় নাগরিকরা বলেন,রোহিঙ্গাদের কারনে কক্সবাজারের মানুষ এখন মানবিক বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়েছে। নিত্যপন্য সহ সব ধরনের খাদ্যদ্রব্যের দাম বেড়েছে ৩ গুন। শ্রমিকরা কর্ম হারিয়েছে সাগরে মাছের আকাল দেখা দিয়েছে। লেখাপড়ার ক্ষতি হচ্ছে পরিবেশ বিপন্ন হচ্ছে সব মিলিয়ে চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে উখিয়া টেকনাফ সহ জেলা সর্বস্থরের মানুষ। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী এনজিওদের বাজেট থেকে ২৫% খরচের বাধ্যতা মূলক হলেও সেটা নিয়ে চরম তালবাহানা করা হচ্ছে। কিছু সরকারি কর্মকর্তাদের অফিস ভবন সজ্জিত করে এবং কিছু লোকদেখানো মিটিং সমাবেশ করে সেই টাকার বেশির ভাগ লোটপাট করা হচ্ছে তাই আমাদের দাবী হোস্ট কমিউনিটির প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা দিয়ে রাস্তাঘাট ব্রীজ মেরামত করার দাবী জানান। এবং সব বাজেট উন্মোক্ত করার ও দাবী জানান। বক্তারা আগামী একমাসের মধ্যে কক্সবাজারের প্রধান সমস্যা সড়ক সংস্কার সহ কক্সবাজারের সার্বিক উন্নয়নে দৃশ্যমান কাজের দাবী জানান। আমরা কক্সবাজারবাসীর সমন্বয়ক কলিম উল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় সমন্বয়ক নাজিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযুদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান নুরুল আবছার, বীর মুক্তিযুদ্ধা মোহাম্মদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শাহজাহান, কমিউনিস্ট পার্টির নেতা সমীর পাল ও দীলিপ দাশ, কামাল উদ্দিন রহমান পেয়ারো, সাংবাদিক নেতা আনছার হোসেন, সংগঠনের সমন্বয়ক সাংবাদিক মহসীন শেখ, জেলা খেলাঘর সভাপতি আবুল কাশেম বাবু, শহিদুল্লাহ মেম্বার, নারী নেত্রী সফিনা আজিম, ফাতেমা আনকিজ ডেইজি, ফাতেমা আলম লিপি, কামাল উদ্দিন, সমন্বয়ক এম জসিম উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন, ফরিদুল আলম হেলালী, সাংবাদিক আমানুল হক বাবুল, দৈনিক একাত্তরের প্রকাশক বেলাল উদ্দিন, কল্লোল চৌধুরী, সাংবাদিক মাহাবুবুর রহমান, ইসমাইল সাজ্জাদ ও স্বপন কান্তি দে প্রমুখ।
এতে উপস্থিত ছিলেন, জেলার বিশিষ্ট সাংবাদিক শামসুল হক শারেক, জাসদ নেতা ফরিদুল আলম, সাংস্কৃতিক সংগঠক আব্দুল মতিন আজাদ, মোরশেদুল আজাদ আবু, মোহাম্মদ জাকারিয়া, মোর্শেদ আলম, সাংবাদিক মোরশেদুর রহমান খোকন, সাংবাদিক সাইফুর রহিম শাহিন, উজ্জল সেন, নুরুল কবির পাশা পল্লব, সাংবাদিক নেজাম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট রেজাউর রহমান, মার্টিন, জাফর আলম, মা টিন টিন, ফাতেমা আক্তার, সাংবাদিক আক্তার হোসাইন কুতুবী, সাংবাদিক সাহদাত হোসাইন, সাংবাদিক ওমর ফারুখ, সাংবাদিক ছৈয়দ আলম, মংথেলা, আলমগীর চৌধুরী ও ফারুক আহমদ প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ায় শাহ আজমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা দখলের অভিযোগ, উত্তেজনা

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পুর্ব সুরাজপুরস্থ ...

একটি খুন লুকাতে গিয়ে আরো ৯টি খুন!

It's only fair to share...000অনলঅইন ডেস্ক ::  প্রথমে যখন লাশগুলো কুয়ায় পাওয়া গিয়েছিল, তখন প্রাথমিকভাবে ...