Home » পার্বত্য জেলা » উদ্বোধনের ৫ মাসেও চালু হয়নি লামা পৌর বাস টার্মিনাল

উদ্বোধনের ৫ মাসেও চালু হয়নি লামা পৌর বাস টার্মিনাল

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি ::

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রায় ২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত বান্দরবানের লামার পৌর বাস টার্মিনাল গত ৩০ অক্টোবর ২০১৮ইং উদ্বোধন করা হয়। কিন্তু উদ্বোধনের ৫ মাস পেরিয়ে গেলেও টার্মিনালটি চালু না হওয়ায় উপজেলার ২ লাখ মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। এতে করে এলাকার প্রধান প্রধান সড়কের বিভিন্ন স্থানে পার্কিং করা হচ্ছে যাত্রীবাহী বাস, জীপ. মাইক্রো বাস সহ মালবাহী গাড়ি।

জানা গেছে, টার্মিনালটি চালু না করার কারনে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিংয়ে সৌন্দর্য্য হারাচ্ছে চিরসবুজ ও পরিচ্ছন্ন লামা উপজেলার পৌর শহরটি। লামা পৌর এলাকায় পুরাতন বাসটার্মিনাল এলাকায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের বাস্তবায়নে ২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় লামা পৌর বাস টার্মিনালটি। বর্তমান পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি গত ৩০ অক্টোবর ২০১৯ইং টার্মিনালটি উদ্বোধন করেন। এদিকে উদ্বোধনের ৫ মাস পেরিয়ে গেলেও চালু না হওয়ায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে স্থানীয়দের।

সরেজমিনে দেখা যায়, ঢাকা, চট্টগ্রাম, চকরিয়া, কক্সবাজার ও বান্দরবান হতে লামা আসা যাত্রীবাহী বাসগুলো ও মালবাহী গাড়িগুলো রাস্তার পাশে পার্কিং করে যাত্রীদের নামিয়ে দেয়। টার্মিনাল না থাকায় গণপরিবহনগুলো রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে যাত্রী নেয়ার প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে। এ সময় স্টেশনের প্রধান সড়কসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে প্রায়ই যানজট লেগে থাকে।

লামা থেকে বান্দরবান আসা বাসের যাত্রী মো. কাউছার আলী, আলা উদ্দিন ও ফাতেমা বেগম বলেন, লামাতে বাস টার্মিনাল তৈরী হচ্ছে অনেক দিন কিন্তু এখনো চালু করতে পারছেনা। যার ফলে আমাদের প্রতিনিয়তি নানা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। স্টেশনের পয়নিস্কাশন ব্যবস্থা নেই। এছাড়া বসার ব্যবস্থা নেই। স্কুল সংলগ্ন মাঠে অস্থায়ী বাসস্টেশন করায় শিক্ষার্থীদের দূর্ঘটনার আশংকা বেড়েছে।

তথ্যমতে, লামা উপজেলার বর্তমানে জনসংখ্যা প্রায় ২ লাখ। লামার নতুন টার্মিনালটি চালু না হওয়ায় লামা পৌরসভার মধুঝিরি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠে অস্থায়ীভাবে রাখা হচ্ছে বাস, ট্রাক, মিনিবাস। যার ফলে যাত্রী ও টিকেট কাউন্টারের স্টেশন মাস্টার ও বাসের হেলপারদের পড়তে হচ্ছে বিপাকে। এছাড়া স্কুল সংলগ্ন অস্থায়ী বাস ও জীপ স্টেশন করায় দূর্ঘটনার ঝুঁকিতে রয়েছে ৫ শতাধিক শিক্ষার্থীরা। বর্তমানে অস্থায়ী বাস টার্মিনালে যাত্রীদের জন্য নেই কোন বসার বেঞ্চ বা পাবলিক টয়লেট ।

লামার মাতামুহুরী বাস সার্ভিসের চালক মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বাস স্টেশন চালু হবে শুনছি অনেক দিন। কিন্তু এখনো চালু না হওয়ার ফলে আমাদের যাত্রীদের রাস্তায় নামিয়ে দিতে হয়। গাড়ী ঠিক স্থানে পাকিং করতে না পারার কারনে অনেক সময় যানজট সৃষ্টি হয়ে যায়।

এই ব্যাপারে লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম সাংবাদিককে বলেন, বাজেট সমস্যা থাকার কারণে টার্মিনালটি এতদিন চালু করতে পারিনি। আমরা আশা করছি অতিশীঘ্রই এটি চালু করে জনসাধারনের জন্য উম্মুক্ত করতে পারবো।

এদিকে দ্রুত লামা পৌর বাস টার্মিনালটি চালু করে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং বন্ধ করে নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি পার্কিং করার মাধ্যমে ভোগান্তি কমিয়ে লামা পৌরসভার সৌন্দর্য্য ফিরিয়ে আনা হোক এমনটাই দাবী করেছে এলাকাবাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খুটাখালীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন: বনভূমি কেটে বালু দস্যুদের সড়ক নির্মাণ 

It's only fair to share...000চকরিয়া সংবাদদাতা :: উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ছড়া খাল থেকে ...

error: Content is protected !!