Home » কক্সবাজার » জলকেলিতে মেতে উঠেছে মারমা তরুণ-তরুণীরা, ফাইতংয়ে সাংগ্রাইং পোয়ে ও জলকেলি উৎসব

জলকেলিতে মেতে উঠেছে মারমা তরুণ-তরুণীরা, ফাইতংয়ে সাংগ্রাইং পোয়ে ও জলকেলি উৎসব

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় উপজেলার সীমান্তবর্তী লামার ফাইতং ইউনিয়নস্থ হেডম্যান পাড়ায় জলকেলিতে মেতে উঠেছে মারমা সম্প্রদায়ের হাজারো তরুণ-তরুণীরা।চলছে সাংগ্রাই উৎসব।শনিবার থেকে মারমাদের সাংগ্রাইং এ উৎসব শুরু হয়েছে।বর্ণিল এ উৎসবকে ঘিরে মেতে উঠেছে মারমা জনগোষ্ঠি।১৭এপ্রিল(মঙ্গলবার) বিকাল ৩টার দিকে লামার ফাইতং ইউনিয়নের হেডম্যান পাড়া আয়োজনে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে জলকেলি (পানি উৎসব) আনুষ্টানিক ভাবে উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।এতে শতশত তরুণ-তরুণী একে অপরকে পানি ছিটিয়ে নিজেরা শুদ্ধ করে নেয়।কনসার্টের তালে তালে নেচে-গেয়ে উল্লাস করছে মারমা সম্প্রদায়ের হাজারো লোকজন।অনুষ্টান উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও ফাইতং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি থোয়াইংসানু মারমা সভাপতিত্বে অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জল ছিটিয়ে অনুষ্টানের শুভ উদ্বোধন করেন,বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক মো:মোস্তফা জামাল।এতে উদ্বোধক ছিলেন,ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমদ কোম্পানি।অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি ছিলেন,ফাইতং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক মো: ওমর ফারুক,চকরিয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার প্রতিনিধি এম এইচ আরমান চৌধুরী,প্রেস ক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকার প্রতিনিধি এম মনছুর আলম,ফাইতং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন জয়,সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সৌরভসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য যে,মারমা সম্প্রদায়ের সাংগ্রাইং পোয়ে এ অনুষ্টানের আকর্ষনীয় ও ঐতিহ্যবাহী দিক হচ্ছে, জলকেলি বা জলোৎসব।পুরাতন বর্ষকে বিদায় আর নতুন বর্ষকে বরণ করার এ উৎসবকে মারমা সম্প্রদায় প্রধান সামাজিক উৎসব হিসেবে বহুবছর ধরে পালন করে আসছে। মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অপরের গায়ে পানি নিক্ষেপ করে উল্লাস প্রকাশের মাধ্যমে তাদের ভাবের আদান-প্রদান করে।মার্মা জনগোষ্ঠীর বিশ্বাস এই পানি উৎসবের মধ্য দিয়ে অতীতের সকল দু:খ-গ্লানি ও পাপ ধুয়ে-মুছে যাবে।সে সাথেই মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অপরকে পানি ছিটিয়ে সম্পর্কের সেতু বন্ধন তৈরি করে বেছে নেবে তাদের জীবন সঙ্গীকে।এ উৎসব উপলক্ষে আশ-পাশের শত শত পাহাড়ি নারী-পুরুষ এবং বিভিন্ন দর্শনার্থী ভিড় জমায় জলকেলি উৎসব দেখতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লামায় বজ্রপাতে ২শিশুসহ ৫ নারী শ্রমিক গুরুতর আহত

It's only fair to share...21100মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা ::  বান্দরবানের লামা উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নে বজ্রপাতে দুই ...