Home » চট্টগ্রাম » বর্ষবরণের আয়োজন ঘিরে উৎসবমুখর চট্টগ্রাম

বর্ষবরণের আয়োজন ঘিরে উৎসবমুখর চট্টগ্রাম

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

ডেস্ক নিউজ ::

‘এসো, এসো, এসো, হে বৈশাখ…বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কালজয়ী এই গানের মাধ্যমে আজ শনিবার শুরু হবে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে পহেলা বৈশাখের দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা। নানা রঙের বাহারি পোশাকে নগরবাসী অসাম্প্রদায়িক চেতনার এই উৎসব উদ্যাপনে অংশ নেবে। জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে বাঙালির প্রাণের উৎসব ও মিলনমেলা ঘিরে বৈশাখের অনুষ্ঠানস্থলসহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গতকাল শুক্রবার থেকে মেলা শুরু হয়েছে।

সেই সঙ্গে বাংলা বর্ষ ১৪২৪-কে বিদায় এবং নতুন বর্ষ ১৪২৫-কে স্বাগত জানাতে নগরীর অন্যতম প্রধান সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ডিসি হিলের নজরুল স্কয়ারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গতকাল মানুষের ঢল নামে। এ ছাড়া নগরীর বিভিন্ন এলাকায়ও চৈত্রসংক্রান্তি ও বর্ষবিদায় উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গতকাল বর্ষবিদায় এবং আজ বর্ষবরণের অনুষ্ঠান ঘিরে চট্টগ্রাম এখন উৎসবমুখর। চৈত্রের দাবদাহ উপেক্ষা করে গতকাল সাপ্তাহিক ছুটির দিনে বর্ষবিদায়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

নগরীতে এবারও পহেলা বৈশাখের মূল দুই অনুষ্ঠানস্থল হলো ডিসি হিলের নজরুল স্কয়ার এবং সিআরবি শিরীষতলা চত্বর। এক কিলোমিটার দূরত্বে আলাদা মঞ্চে বৈশাখের প্রথম দিনে আজ নানা অনুষ্ঠান ঘিরে মানুষের বাঁধ ভাঙা জোয়ার সৃষ্টি হবে। প্রতিবছর প্রধান এ দুই অনুষ্ঠানস্থল ঘিরে নগরীর কয়েক কিলোমিটার এলাকায় যান চলাচল বন্ধ থাকে।

এদিকে এবারও বাঙালি সংস্কৃতির ইতিহাস ও ঐতিহ্যের শুভ মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারু ও কারুকলা ইনস্টিটিউট। বাংলা নববর্ষ ১৪২৫-কে স্বাগত জানিয়ে ইনস্টিটিউট থেকে আজ সকাল ১০টায় বের হবে ঐতিহ্যবাহী মঙ্গল শোভাযাত্রা। এ ছাড়া ডিসি হিলসহ নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকেও পহেলা বৈশাখকে স্বাগত জানিয়ে শোভাযাত্রা বের করা হবে।

‘পহেলা বৈশাখ বাঙালির উৎসব সবার যোগে জয়যুক্ত হোক’—এ স্লোগানে গতকাল বিকেলে ডিসি হিলের নজরুল স্কয়ারে শুরু হয়েছে দুই দিনের ৪০তম বর্ষবিদায় ও বরণ অনুষ্ঠান। সম্মিলিত পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন পরিষদের এ আয়োজনে গতকাল বিকেল থেকে ঢল নামে নানা বয়সী মানুষের।

বিকেল সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠানমালা শুরু হয় অভ্যুদয় সংগীত অঙ্গনের পরিবেশনা দিয়ে। এরপর ওড়িশি অ্যান্ড টেগোর ডান্স মুভমেন্ট সেন্টারের ছোট্ট সোনামণিরা পরিবেশন করে অসাধারণ নৃত্য। এ ছাড়া নানা অনুষ্ঠান চলে রাত ৮টা পর্যন্ত।

পরিষদের আহ্বায়ক আহমেদ ইকবাল হায়দার জানান, এবার গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালক সৈয়দ মহিউদ্দিন এবং প্রাচীন পুঁথি, পাণ্ডুলিপি ও লোকসাহিত্য সংগ্রাহক মুহাম্মদ ইসহাক চৌধুরীকে সম্মাননা জানানো হবে। বর্ষবরণ অনুষ্ঠান শুরু হবে আজ সকাল ৬টা থেকে। প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলবে। সময় স্বল্পতার কারণে এবার ডিসি হিলে নজরুল স্কয়ারে একক পরিবেশনা থাকছে না। থাকবে শুধু দলীয় পরিবেশনা।

নগর পুলিশের উপকমিশনার (ডিবি) হাসান মো. শওকত বলেন, বর্ষবরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান ঘিরে ডিসি হিলে তিন স্তরের নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। বসানো হয়েছে একটি ওয়াচ টাওয়ার। কয়েক শ পুলিশ সদস্য সাদা পোশাকে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া গোয়েন্দা পুলিশ ও পোশাক পরিহিত নারী পুলিশ সদস্যরাও আছেন। চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চলছে। মোবাইল টিম সক্রিয় রয়েছে। স্ট্রাইকিং ফোর্স প্রস্তুত রাখা হয়েছে। যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সর্বোচ্চ সতর্ক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

ডিসি হিলের পাশাপাশি সিআরবি শিরীষতলায়ও দুই দিনের অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়েছে গতকাল বিকেলে। গতকাল বিকেল ৩টায় ঢোল বাদন ও বেলুন ওড়ানোর মধ্য দিয়ে বর্ষবিদায় অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর বিভিন্ন সংগঠনের সমবেত ও একক পরিবেশনা ছিল। আজ সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হবে নববর্ষ বরণের বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান। ‘অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা’ স্লোগান সামনে রেখে এ আয়োজন করেছে নববর্ষ উদ্যাপন পরিষদ, চট্টগ্রাম। এবার ১০ বছর পূর্তি হতে যাচ্ছে এই উৎসবের। দলীয় বেহালার সুরে শুরু হবে নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার আয়োজন। এরপর দিনভর চলবে নানা অনুষ্ঠান। এর মধ্যে দুপুর ২টায় সাহাবউদ্দীনের বলিখেলার আয়োজন করা হয়েছে।

সিআরবির বর্ষবরণের এ অনুষ্ঠান ঘিরে প্রতিবছর নগরীর কদমতলী মোড়, এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের ফটকসংলগ্ন সড়ক, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কার্যালয় মোড় থেকে যান চলাচল বন্ধ থাকবে। অপরূপ সাজে সাজানো হয়েছে সিআরবি এলাকা।

এদিকে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে আজ নববর্ষ উদ্যাপনের ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বহদ্দারহাট স্বাধীনতা পার্কে সকাল ৯টায় অনুষ্ঠান শুরু হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের উদ্যোগে নগরীর ফিশারিঘাটস্থ কর্ণফুলী নদীর তীরবর্তী এলাকায় বৈশাখী মিলনমেলার আয়োজন করা হয়েছে।

শিল্পকলা একাডেমি থেকে সকালে শোভাযাত্রা বের করা হবে। এরপর দুপুরে শুরু হয়ে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলবে নানা অনুষ্ঠান। চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবেও নববর্ষের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে আজ। এ ছাড়া বাংলা নববর্ষকে স্বাগত জানাতে শুধু প্রধান প্রধান অনুষ্ঠানস্থলই নয়, নগরীর অভিজাত হোটেল, মোটেল, রেস্তোরাঁ, বিনোদনকেন্দ্র, পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকতসহ সর্বত্র আয়োজন করা হয়েছে বৈশাখের অনুষ্ঠান।

পহেলা বৈশাখের উৎসব সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। মহানগরীতে তিন স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়েছে সিএমপি। গত বৃহস্পতিবার সিএমপি সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আমেনা বেগম জানিয়েছেন, পহেলা বৈশাখ ঘিরে নগর পুলিশ সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। পহেলা বৈশাখের নিরাপত্তায় অনুষ্ঠানস্থলের আশপাশে পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট সোয়াত ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট মাঠে থাকবে। এ ছাড়া মাঠে পিকেট, মোবাইল টিম, গোয়েন্দা দল, সুইপিং টিম ও আর্চওয়ে, স্ট্রাইকিং রিজার্ভ, ফায়ার সার্ভিস ইউনিট, মেডিক্যাল টিমসহ পুলিশ লাইনসে রিজার্ভ ফোর্স রাখা হবে। সব মিলিয়ে আজকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তিন হাজারের বেশি পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ইছমাঈলের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

It's only fair to share...21100চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : চকরিয়া পৌর এলাকার আলোচিত মাদক সম্রাট ইছমাঈলের ...