Home » কক্সবাজার » পেকুয়ায় ধর্ষক ‘খোকন’পুলিশের হাতে আটক

পেকুয়ায় ধর্ষক ‘খোকন’পুলিশের হাতে আটক

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page
নাজিম উদ্দিন, পেকুয়া ::
পেকুয়ায় স্কুল ছাত্রী রুমার (ছদ্ননাম) ধর্ষনকারী খোকন (২০) কে আটক করেছে পুলিশ। আব্দুল গফুর প্রকাশ খোকন টইটং ইউনিয়নের হাজ্বীর পাড়ার বশির আহমদের ছেলে। মঙ্গলবার (১০এপ্রিল) সকাল ১১টায় টইটং নাপিতখালী এলাকা থেকে তাকে আটক করে। সে পুলিশ ও সাংবাদিকদের কাছে দায় স্বীকার করেছে। শিক্ষার্থীর পিতা হাজ্বীর পাড়ার নবীর হোসেন বাদি হয়ে অভিযুক্ত খোকনকে আসামী করে থানায় এজাহার দায়ের করেছে। জানা গেছে গত ৪এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে খোকন ওই ছাত্রীকে ধান ক্ষেতে নিয়ে আইলের মধ্যে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপুর্বক ধর্ষন করে। মুমর্ষ ও রত্তাক্ত অবস্থায় তাকে পেকুয়া লাইফ কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওইদিন তাকে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। ভিকটিমের মা জান্নাতুল ফেরদৌস জানায় ওইদিন সন্ধ্যায় পাশের বাড়ির নলকুপ থেকে পানি আনতে যায় রুমা। প্রায় আধা ঘন্টাপর বাড়ির উঠানে এসে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। এ সময় তার প্রচুর রক্তক্ষরন হয়। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রুমার পিতা নবীর হোসেন জানায় মেয়ে পানি আনতে গেলে খোকন তাকে পেছন থেকে এসে মুখ চেপে ধরে ধান ক্ষেতে নিয়ে যায়। তাকে জোরপুর্বক ধর্ষন করা হয়েছে। শরীরে বিভিন্ন আঘাত রয়েছে। হাসপাতালে দু’দিন পর তার জ্ঞান ফিরে। রুমা সব কিছু খোলে বলেছে। আমি দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চাই। জানা গেছে রুমা টইটং উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থী। আব্দুল গফুর খোকন জানায় আমি ভুল করেছি। অনুতপ্ত আমি। ওই মেয়ের সাথে আমার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। পেকুয়া থানার এসআই বিপুল চন্দ্র রায় জানায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খোকনকে আটক করা হয়েছে। সে তার অপকর্মের কথা স্বীকার করেছে। নবীর হোসেন বাদি হয়ে এজাহার দিয়েছে। ওসি জহিরুল ইসলাম খান জানায় এজাহার পেয়েছি। মামলা রেকর্ড় করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৫৭-র চেয়ে ৩২ বড়ই থাকল, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস

It's only fair to share...23500নিজস্ব প্রতিবেদক ::  সাংবাদিক ও মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন মহলের আপত্তি থাকলেও ...