ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১

কুতুবদিয়ার ৪৩ গ্রাম পুলিশ পেলেন বাই সাইকেল

আব্বাস সিদ্দিকী, কুতুবদিয়া ::
কুতুবদিয়ায় চলছে ৫ম দিনের লকডাউন। সড়কে নেই জীপ গাড়ী, নেই সিএনজি, খুব কমেই পথচারী, সড়ক ফাঁকা। দ্বীপের প্রধান দুটি প্রবেশপথে আছে পুলিশের চেকপোস্ট। উপজেলার বিভিন্ন সড়কে টহল দিচ্ছে নৌবাহিনী, নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ডা. নুরের জামান চৌধুরী ও পুলিশ। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপরতার পরও কঠোর লকডাউনে গ্রামাঞ্চলের অলিগলিতে দোকানে বসে আড্ডায় মেতে উঠেছে মানুষ। দ্বীপের উপজেলা চত্বর, ধূরুং বাজার, বড়ঘোপ বাজার, দরবার জেটি ঘাট ও বড়ঘোপ জেটি ঘাটে ছিল পুলিশের চেকপোস্ট। তবে একান্ত প্রয়োজনে বাড়ী থেকে বের হলেই পরিবহনের ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। এ অবস্থায় অসুস্থ রোগী বহনের জন্য ২/৪ টি সিএনজি গাড়ী সচল রাখার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

এদিকে, সোমবার (৭ জুলাই) দুপুর ১২টায় বঙ্গবন্ধু জন্ম শতবর্ষ বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে মহামারী করোনা কালীন কাজের গতি বৃদ্ধি করতে কুতুবদিয়ায় ৬টি ইউনিয়নের ৪৩ জন গ্রাম পুলিশের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ডা: নুরের জামান চৌধুরী। এদের মধ্যে ২জন মহিলা গ্রাম পুলিশও এ বাই সাইকেল পেয়েছেন। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে বিনামূল্যে এ বাই সাইকেল দেয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উত্তর ধূরুং ইউপি চেয়ারম্যান আ.স.ম শাহরিয়ার চৌধুরী, দক্ষিন ধূরুং ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ চৌধুরী , লেমশীখালী ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোছাইন, কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান জালাল আহমেদ, বড়ঘোপ ইউপি চেয়ারম্যান আ.ন.ম শহিদ উদ্দীন ছোটন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা খোকন চন্দ্র দাস ও সাংবাদিকসহ প্রমুখ।

পাঠকের মতামত: