ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

রামুর চা বাগান স্টেশনে আবারো মিনিট্রাক চাপায় ১ জনের মৃত্যু

সোয়েব সাঈদ ::
রামুর জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের চা বাগান স্টেশনে আবারো মিনিট্রাক চাপায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাতটায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। এতে নিহত মমতাজ আহমদ (৯৫) জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের মিঠাছড়ি এলাকার মৃত মোহাম্মদের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন- রাস্তা পারাপারের সময় দ্রæতগতির মিনি ট্রাক (চট্টমেট্টো অ -১১-০৩২৪) মমতাজ আহমদ চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনি প্রাণ হারান।
জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন-ওই স্থানে গত শুক্রবার (৯ এপ্রিল) মিনিট্রাকের ধাক্কায় স্থানীয় বাসিন্দা গাড়ি চালক শরীফ প্রাণ হারান। দুমাস পূর্বে এখানে প্রাণ হারান অপর এক কলেজ ছাত্রী। কয়েকবছরে এ স্টেশনে দুর্ঘটনায় প্রাণহানি হয়েছে আরো একাধিক ব্যক্তির। আহত হয়ে অসহায় জীবনও পার করছেন অনেকে।
বাজারের ব্যবসায়িরা জানান, এ স্থানটি দীর্ঘদিন ঝূঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এখানে সড়কটি অবস্থাও নাজুক। একপাশে উঁচু, অন্যপাশে অনেক নিচু। যে কারনে এ স্টেশন পার হওয়ার সময় গাড়িগুলো একপাশে হেলে পড়ে। যে কারণে প্রায়সময় এখানে দূর্ঘটনা ঘটে।
কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এসএম সাদ্দাম হোসেন শুক্রবারের সড়ক দূর্ঘটনার পর ওই স্থানে যান। তিনি জানান-এখানে সড়কটি উচুঁ-নিচু। আবার সড়কের দুপাশে রয়েছে খাদ। মাটি না থাকায় পথচারিরা চলাচল করতে পারেনা। আবার স্টেশনে থাকা গাড়িও সড়কের পাশে পার্কিং করা সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি এ বিষয়টি নিয়ে সড়ক ও জনপদ (সওজ) এর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে করণীয় বিষয়ে আলাপ করবেন বলে জানান।
স্থানীয়রা জানান-সড়ক ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি রামুতে সুষ্ক মৌসুমে মিনিট্রাকগুলো বেপরোয়াভাবে চলাচল করে। প্রতিবছর মিনিট্রাক চাপায় বাড়ছে মানুষের মৃত্যুর মিছিল। উন্নত সড়ক ব্যবস্থার পাশাপাশি এসব মিনিট্রাকের দৌরাত্মও নিয়ন্ত্রণের দাবি সর্বস্তুরের জনসাধারণের।

পাঠকের মতামত: