ঢাকা,মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

পরিচয় না জানায় বিপাকে পুলিশ

চকরিয়ায় গাড়ির ধাক্কায় আহত নারী মারা গেছেন

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :: কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া পৌরসভা বাস টার্মিনালের দক্ষিনে বেপরোয়া গতির গাড়ীর ধাক্কায় আহত অজ্ঞাতনামা এক মুসলিম মহিলা (৫২) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৪দিন পরে মারা গেছে। গত ১০জুলাই সকাল সাতটায় চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনি মারা যান। তবে এতদিন পরও পুলিশ নিহতের পরিচয় সনাক্ত করতে পারেনি। এ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন লাশ উদ্ধারকারী সংস্থা চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ।

চকরিয়া উপজেলা মহাসড়কের চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম জানান, গত ২৭জুন দুপুর সাড়ে এগারটার দিকে চকরিয়া পৌরসভা বাস টার্মিনালের দক্ষিণে চট্টগ্রাম- অজ্ঞাতনামা একটি গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হন ওই মহিলা। ওইসময় গুরুতর অবস্থায় আহত মহিলা সড়কে পড়ে থাকতে দেখে ফাসিয়াখালী ভেন্ডীবাজার এলাকার জাহাঙ্গীর আলমসহ পথচারী লোকজন তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

তিনি বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১০জুলাই সকাল সাতটার দিকে ওই মহিলা মারা যায়। মৃত্যুর পর নিহত মহিলার সুরতহাল রির্পোট তৈরী করা হয়। পরে লাশের কোন ওয়ারিশ মেলেনি। এই অবস্থায় আমরা তার পরিচয় সনাক্তের জন্য দুই হাতের ১০ আঙ্গুলের ছাপ সংগ্রহ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) কক্সবাজারকে পাঠাই। একইসঙ্গে লাশের ময়নাতদন্ত ও মৃত্যুর সঠিক কারন নির্ণয় এবং ডিএনএ প্রোফাইলিং তৈরী করতে মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করি।

এসআই সিরাজুল ইসলাম জানান, ময়নাতদন্ত ও ডিএনএ প্রোফাইলিং তৈরী শেষে বেওয়ারিশ হিসেবে মরদেহটি ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক দাফনের জন্য কক্সবাজার পৌরসভার মেয়রের মাধ্যমে আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলামে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় চকরিয়া থানায় ১১জুলাই সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর ১০৫/৯৮/৯৫ ধারায় একটি মামলা (নং ১৫/২১) দায়ের করা হয়েছে।

 

পাঠকের মতামত: