ঢাকা,শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

ঈদগাঁওতে কোচিং-প্রাইভেট চলছেই : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

স্টাফ রিপোটার, ঈদগাঁও ::  করোনার থাবা ক্রমশ ভয়াল রূপ ধারণ করে চলেছে। মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। শিক্ষার্থীদের কে করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদে রাখতে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ ঘোষণা করলেও ঈদগাঁওতে তা মানা হচ্ছেনা। সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল ৭টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঈদগাঁও স্টেশন, ছাগলের বাজার এলাকা, জাগিরপাড়ার অলিগলিতে দেদারছেই চলে কোচিং-প্রাইভেট। শিক্ষার্থীদেরকে ছোট ছোট কক্ষে ঠাসাঠাসি করে বসানো দেখে মনে হয়,শিক্ষকরা যেন শিক্ষা বানিজ্যের পসরা সাজি য়েছেন ।

সূত্রে প্রকাশ, শিক্ষায় করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার এ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষার্থী দের মূল্যায়নের ব্যবস্থা করেছে। শিক্ষার্থী জনিয়া সহ কজনের সাথে কথা হলে তারা, এই কাজে তাদেরকে সপ্তাহে ১-২ দিন স্কুলে যেতে হয়। কিন্তু সপ্তাহের ৬দিনই রাস্তাঘাটে ইউনিফর্ম, বোরকা বা সাধারণ পোশাকে শিক্ষার্থীদের বিচরণ দেখে বুঝার উপায় নেই ঈদগাঁওর স্কুলগুলো যে বন্ধ।

এই ব্যাপারে স্থানীয় মাধ্যমিক শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সচিব নূরুল ইসলাম জানান, করোনা দুর্যোগে এলাকায় সচেতনতা বৃদ্ধির পরি বর্তে শিক্ষক কর্তৃক সরকারী নির্দেশনা অবজ্ঞার বিষয়টি লজ্জাজনক। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের তদা রকি জোরদার করা প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

সচেতন মহলের মতে, তদন্ত পূর্বক কোচিং এবং প্রাইভেট বন্ধ করে বর্তমান সময়ে করোনার মত সংক্রমন থেকে বাঁচানো হউক শিক্ষার্থীদেরকে।

পাঠকের মতামত: