ঢাকা,শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

ঘুষ লেনদেন অভিযোগে,

চকরিয়া সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে দুদকের অভিযান: ৪ লাখ ৩০হাজার টাকা উদ্ধার, অভিযান চলছে..

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :: কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) অভিযান চালানো হয়। এসময় সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় থেকে নগদ ৪লাখ ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে চকরিয়া সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ে এ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন প্রাথমিক ভাবে এ প্রতিবেদকে অভিযানের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
দুদকের অভিযান সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে বেশ কিছুদিন ধরে জমির দলিল সম্পাদনের সময় ঘুষের লেনদেন নিয়ে বেশকিছু অভিযোগ আসে। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয় অভিযানে নামে। সম্প্রতি রশিদ আহমদ নামের এক ব্যক্তির দলিল রেজিস্ট্রেশনের জন্য সাব-রেজিস্ট্রার নাম ব্যবহার করে এক কর্মচারী ঘুষ দাবি করেন। দুদক কর্মকর্তারা ভুক্তভোগী অভিযোগকারী সেবা গ্রহীতাকে সাথে নিয়ে সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে যান। পরে দুদক কর্মকর্তারা কার্যালয়টিতে অভিযান চালান। এ সময় সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের প্রধান সহকারী ও অন্যান্য সহকারী কাছ থেকে দুদকের টিম শনাক্ত করে ৪লাখ ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে তথ্য নিশ্চিত করেন। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দুদকের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ঘুষ লেনদেন বিষয়ে এখনো কাউকে আটক করেনি।তবে রাত ১০টা ৪০মিনিটের সময় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  দুদক টিম ও সাব রেজিষ্ট্রার অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সবাই অফিস অবস্থান করতে দেখা গেছে।

এদিকে রাত সাড়ে ৯টার সময় দুদকের একটি দল সাব রেজিষ্টারের সবুজবাগ আবাসিক এলাকায় অবস্তিত আনোয়ার টাওয়ারের ৫ম তলায় তার বাসভবনে অভিযান চালিয়েছে। তবে তার বাসভবনে কি পরিমাণ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা।

অভিযানে নেতৃত্বে দেয়া দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন বলেন, চকরিয়া সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় থেকে অভিযান চালিয়ে প্রাথমিক ভাবে ৪ লাখ ৩০হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো দুদকের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অভিযান শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

পাঠকের মতামত: