ঢাকা,শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

মহান স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তিতে

শহর জামায়াতের বর্ণাঢ্য র‌্যালি

প্রেসবিজ্ঞপ্তি :: মহান স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে, কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কক্সবাজার শহর। আজ ২৪ মার্চ বুধবার, সকালে শতাধিক জাতীয় পতাকা, ব্যানার-ফেষ্টুন সজ্জিত র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

শহর জামায়াতের আমির ফজলুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত র‌্যালি পরবর্তি সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা জামায়াতের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন, শহর জামায়াত সেক্রেটারী রিয়াজ মুহাম্মদ শাকিল, শ্রমিক কল্যান জেলা সেক্রেটারী মুহাম্মদ মুহসিন, শহর জামায়াত সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন, ছাত্রশিবির শহর সভাপতি রাকিবুল ইসলাম, শহর জামায়াত অফিস সেক্রেটারী দরবেশ আলী মোঃ আরমান, প্রচার সেত্রেুটারী জাহেদুল ইসলাম নোমান, বায়তুলমাল সেক্রেটারী হাবিবুর রহমান, শ্রমিক কল্যান জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এমইউ বাহাদুর, ছাত্রশিবির শহর সেক্রেটারী মোঃ রাশেদুল হক প্রমূখ।

সমাবেশে প্রধান অতিথি জাহেদুল ইসলাম বলেন, মহান স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি উদযাপন একটি জাতির জন্য আনন্দ ও গৌরবের বিষয়। বিশ্বের মানচিত্রে নতুন স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ৫০ বছর পার হলেও বাংলাদেশের মানুষ তার মৌলিক অধিকার ফিরে পায়নি। স্বাধীন বাংলাদেশের যে ঐক্যের চেতনাকে ধারণ করে পথ চলার কথা ছিল, স্বার্থান্বেষী মহলের কারণে তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। অনৈক্য ছড়িয়ে বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্র চলছে। আওয়ামী লীগ আজ স্বাধীন বাংলাদেশে একাত্তরের পাকিস্তানী স্বৈরাচারের ভূমিকায়ই অবতীর্ণ হয়েছে। পাকিস্তানী অপশাসকদের মতই একইভাবে স্বৈরাচারী কায়দায় বর্তমান অবৈধ সরকার অস্ত্রের মুখে জনগণের মৌলিক অধিকার কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। অপশাসন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কেউ কথা বললেই তাকে গুম, খুন, গ্রেফতার হতে হচ্ছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, যে স্বপ্ন নিয়ে জনগন রক্ত দিয়ে দেশকে স্বাধীন করেছিল আজও তা পূর্ণ হয়নি। মানুষের বেঁচে থাকার অধিকার, ভোটের অধিকার, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার অধিকার পর্যন্ত কেড়ে নিয়ে বর্তমান সরকার স্বাধীনতার চেতনাকে ভুলুন্ঠিত করেছে। মুক্তিযোদ্ধাগণ আজ অসম্মানিত, অপমানিত, অবহেলিত। সত্য কথা বলার অপরাধে আজ মুত্তিযোদ্ধাগণ রাজাকার খেতাব পাচ্ছেন। স্বাধীন বাংলাদেশে কথা বলা, মত প্রকাশ ও বসবাস করার অধিকার এই সরকার হরণ করেছে। গুলি করে পাখি শিকারের মত মানুষ মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। এটার নাম কি গণতন্ত্র? এ জন্য কি দেশের মানুষ রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিল?

আজ স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তিতে অতীতের সকল ভেদাভেদ ভুলে জাতিকে এগিয়ে নিতে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন। তাই মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গনতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার শপথে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার অহবান জানান নেতৃবৃন্দ।

 

 

পাঠকের মতামত: