ঢাকা,শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১

সবাই মিলে কাজ করলে শুঁটকি পল্লীতে শিশুশ্রম নিরসন করা অসম্ভব হবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার ::  সবাই মিলে কাজ করলে শুঁটকি পল্লীতে শিশুশ্রম নিরসন করা অসম্ভব হবে না
২০২৫ সালের মধ্যে আমরা কক্সবাজার শহরের নাজিরারটেকসহ আশেপাশের শুঁটকি পল্লীতে কাজ করা শিশুদের স্কুলে ফিরিয়ে আনতে পারব বলে আশা করছি। একইভাবে আমরা যারা শিশু সুরক্ষায় কাজ করছি সবাই যদি কাজ করি, তাহলে শুঁটকি পল্লীতে শিশুশ্রম নিরসনে ব্যাপক পরিবর্তন আসবে।

উইনরক ইন্টারনাশন্যাল এর আর্থিক সহযোগিতায় ও এ্যালায়েন্স ফর কো-অপারেশন এন্ড লিগাল এইড বাংলাদেশ (একলাব) এর বাস্তবায়িত ‘ক্লাইম্ব প্রকল্পের’ উদ্যোগে সরকারী-বেসরকারি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে একটি প্লাটফর্ম নেটওয়ার্ক তৈরী করে ‘শুঁটকি পল্লীতে শ্রমজীবী শিশু ও তাদের পরিবারকে রেফারাল মেকানিজমের মাধ্যমে বিদ্যমান সেবাগুলো সংযুক্ত হতে সুযোগ করে দেয়ার উদ্দেশ্যে’ এ্যাডভোকেসী সভা গত (১৮ নভেম্বর) শহরের কলাতলী হোটেল নিডস বে ওয়াস এর হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী অফিসার ইকরামুল্লাহ চৌধুরী এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন, সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাদের, পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কমিশনার আক্তার কামাল।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ এবং সেই সকল শিশুদের সঠিকভাবে শারীরিক ও মানসিক বিকাশের দায়িত্ব প্রত্যেকের। ২০২৫ সালের মধ্যে দেশে শিশুশ্রম নিরসনে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এই লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থাগুলো কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন, সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টায় ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন করে অচিরেই দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হবে।

সভায় বক্তাগণ শিশুশ্রমকে মানবাধিকার লংঘন হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাদের প্রতি আমাদের আরো যত্নবান হতে হবে এবং শুঁটকি খাতে শিশুশ্রম হ্রাসকরন ও ঝুকিপূর্ণ শিশুশ্রম সম্পর্কে ক্লাইম্ব প্রকল্প ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম তালিকা পর্যালোচনার মাধ্যমে শুঁটকি প্রক্রিয়াজাত খাতে শিশুশ্রমকে ঝুকিপূর্ণ হিসেবে অর্ন্তভূক্ত ও শিশুশ্রম হ্রাসকরনে বিদ্যমান প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামোগুলোর সক্ষমতা ও সমন্বয় বৃদ্ধিতে একসাথে কাজ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উইনরক ইন্টারন্যাশনাল এর ক্লাইম্ব প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার আসমা আক্তার, একলাবের ক্লাইম্ব প্রকল্পের প্রোগ্রাম কোঅডিনেটর মাহবুব উল আলম, ট্রেনিং এন্ড এ্যাডভোকেসী অফিসার মোশারফ হোসেন, একলাবের ক্লাইম্ব প্রকল্পের অর্থ ও প্রশিক্ষণ অফিসার মোঃ রিয়াজ উদ্দিন প্রমুখ ছাড়াও এ সময় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, এনজিও ফোরামের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত: