ঢাকা,সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০

খুটাখালীতে মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগে ৩ লাখ টাকার মাছ মারা গেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া :: চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ মেধাকচ্ছপিয়া চাড়িঘোনা এলাকায় রাতের আঁধারে একটি মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় প্রায় তিন লাখ টাকার মাছ মারা গেছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ চাষীরা। বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় নুরুল ইসলাম পেঠান ও ওমর আলীর মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগের এ ঘটনা ঘটেছে। ক্ষতিগ্রস্থরা ঘটনাটি পুর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন ঘটিয়েছে বলে দাবি করেছেন।

অভিযোগে ক্ষতিগ্রস্থ মৎস্য খামার মালিক নুরুল ইসলাম পেঠান ও ওমর আলী জানান, প্রায় দশমাস আগে খুটাখালী ইউনিয়নের মেধাকচ্ছপিয়া এলাকার আক্তার হোসেনের ছেলে তৌহিদুল ইসলাম কক্সবাজার সদর উপজেলার জানেরঘোনা গ্রামের মোহাম্মদ আবদুল্লাহ’র মেয়ে শাবনুর বেগম নামের এক মেয়েকে বিয়ে করেন। বর্তমানে মেয়েটি পাঁচমাসের অন্ত:স্বর্ত্তা। সম্প্রতি সময়ে মেয়েটিকে শাররীক নির্যাতন চালিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেন স্বামী তৌহিদ ও তাঁর পরিবারের লোকজন।

খামার মালিক পেঠান ও ওমর আলী জানান, নির্যাতিত মেয়েটির পরিবার ঘটনাটি আমাদেরকে জানালে মানবিক কারণে এলাকার বিষয় হওয়ায় আমরা তা সমাধানের চেষ্ঠা করি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে অভিযুক্ত তৌহিদুল ইসলাম ও তাঁর পিতা আক্তার হোসেন। সমঝোতার চেষ্ঠা করেছি বলে আক্তার হোসেন মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে আমাদেরকে জড়িয়ে থানায় মিথ্যা অভিযোগও দিয়েছে।

সর্বশেষ ওই ঘটনার জেরে প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে বৃহস্পতিবার রাতের আঁধারে স্থানীয় আক্তার হোসেন ও তাঁর দুই ছেলে তৌহিদুল ইসলাম, জমির হোসেন, সহযোগি বর্মাইয়া আমান উল্লাহ, ফরিদুল হক মিলে আমাদের মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগ করেছে। এ ব্যাপারে চকরিয়া থানা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ খামার মালিক নুরুল ইসলাম পেঠান ও ওমর আলী।

 

 

পাঠকের মতামত: